সর্বশেষ
মঙ্গলবার ১২ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ | ২৬ মে ২০২০

ত্বকের জন্য ক্ষতিকর ৭ উপাদান

শুক্রবার, জানুয়ারী ৩১, ২০২০

205.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

অনেকেই বডি লোশন ব্যবহার করে থাকেন। হাতে, পায়ে মাখার সঙ্গে সঙ্গে মুখের ত্বকেও মেখে নেন বডি লোশন! কিন্তু ডার্মেটোলজিস্ট বা ত্বক-বিশেষজ্ঞদের মতে, এতে ত্বকের উপকারের তুলনায় ক্ষতির আশঙ্কাই বেশি! শুধু বডি লোশনই নয়, এমন অনেক কিছুই আছে যা মুখের ত্বকের জন্য ক্ষতিকর!

জেনে নিন কোন কোন উপাদানগুলো মুখের জন্য ক্ষতিকর-

ভ্যাসলিন:
ভ্যাসলিন সারা বিশ্বেই ত্বক আর্দ্র করার একটি উৎকৃষ্ট উপাদান। এটি শুষ্ক ত্বক প্রতিরোধে উপকারী। বিভিন্ন কাটাছেঁড়া বা পোকামাকড়ের কামড়ে এটি ব্যবহার করা যায়। তবে ব্রণ হলে কখনোই ভ্যাসলিন মুখে লাগাবেন না। কারণ, এটি ব্রণ বাড়িয়ে দিতে পারে।

বডি লোশন:
বডি লোশন তৈরি করা হয় শরীরের জন্য, মুখের জন্য নয়। শরীরের ত্বক মুখের ত্বকের তুলনায় পুরু হয়। আর বডি লোশনকেও সে অনুযায়ী তৈরি করা হয়।

গরম পানি:
গরম পানির গোসল বা বাষ্পে গোসল অনেকেরই পছন্দ হতে পারে। তবে গরম পানি মুখের ত্বকে লাগানো ঠিক নয়। এটি মুখের ত্বককে শুষ্ক করে তোলে।

লেবু:
লেবুর অনেক স্বাস্থ্যকর গুণ রয়েছে। তবে এটি মুখের ত্বকের পিএইচের ভারসাম্য ক্ষতিগ্রস্ত করে। তাই এটি ত্বকে ব্যবহার করবেন না।

মেয়নেজ:
মেয়নেজ তৈরি হয় ডিম, তেল আর ভিনেগারের সংমিশ্রণে। এ উপাদানগুলো রুক্ষ চুলের জন্য খুবই উপকারী। কিন্তু এটি মোটেও মুখের ত্বকের জন্য ভালো নয়। কাজেই এটি ব্যবহার না করাই ভালো।

টুথপেস্ট:
অনেকেই ব্রণ শুকিয়ে ফেলার জন্য টুথপেস্ট ব্যবহার করেন। তবে এ কাজ কখনোই করতে যাবেন না। টুথপেস্ট মুখের ত্বকে অস্বস্তি বাড়ায় এবং জটিল সমস্যা তৈরি করতে পারে। যেমন : কেমিক্যাল বার্ন, স্কার্স ইত্যাদি।

বেকিং সোডা:
অনেকেই ভাবেন, বেকিং সোডার ব্যবহার ত্বকের মৃতকোষ দূর করতে ভালো। বিশেষজ্ঞরা বলেন, এর ব্যবহারে ত্বকের ক্ষতি হয় এবং ত্বকের আর্দ্রতা নষ্ট হয়। তাই মুখে বেকিং সোডা ব্যবহার না করার পরামর্শই দেন বিশেষজ্ঞরা।

 


ঢাকা, শুক্রবার, জানুয়ারী ৩১, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৪২৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন