সর্বশেষ
সোমবার ২৩শে চৈত্র ১৪২৬ | ০৬ এপ্রিল ২০২০

বিরুদ্ধে সাক্ষ্য, দুই কর্মকর্তাকে সরালেন ট্রাম্প

শনিবার, ফেব্রুয়ারী ৮, ২০২০

10.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

সিনেটে অভিশংসন প্রক্রিয়া থেকে পুরোপুরি খালাস পেয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। অভিশংসন থেকে মুক্তি পেয়েই কংগ্রেসে তার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দেওয়া দুই কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুত করেছেন ট্রাম্প। অভিশংসন থেকে খালাস পাওয়ার স্বল্প সময়ের মধ্যেই তিনি এ পদক্ষেপ নিলেন।

বিবিসি জানিয়েছে, ইউরোপীয় ইউনিয়নে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত গর্ডন সন্ডল্যান্ড ও হোয়াইট হাউসের ইউক্রেইন বিষয়ক অন্যতম শীর্ষ বিশেষজ্ঞ লেফটেনেন্ট কর্নেল আলেক্সান্ডার ভিন্ডম্যান শুক্রবার নিজেদের চাকরিচ্যুতির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সন্ডল্যান্ড বলেছেন, প্রেসিডেন্ট তাকে প্রত্যাহারের ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন এবং তা শিগগিরই কার্যকর হবে বলে জানতে পেরেছেন তিনি।

আলেক্সান্ডার ভিন্ডম্যানের জমজ ভাই ইয়েভগেনি ভিন্ডম্যান জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন; শুক্রবার তাকেও সামরিক বিভাগে ফেরত পাঠানো হয়েছে বলে মার্কিন গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

নভেম্বরে কংগ্রেসে দেওয়া সাক্ষ্যে সন্ডল্যান্ড বলেছিলেন, ইউক্রেইনের প্রেসিডেন্ট ভ্লদিমির জেলেনস্কির হোয়াইট হাউস সফরে জন্য ট্রাম্প সাবেক মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও তার ছেলের দুর্নীতি তদন্ত শুরুর শর্ত দিয়েছিলেন।

কংগ্রেসের শুনানিতে দেওয়া সাক্ষ্যে আলেক্সান্ডার ভিন্ডম্যান জানান, গত বছরের ২৫ জুলাই মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে জেলেনস্কির ‘অন্যায্য’ ফোনালাপের কথা শুনে তিনিও ‘উদ্বিগ্ন’ হয়েছিলেন।

দুই কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুতির এ খবরের তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে ডেমোক্রেটরা। প্রতিনিধি পরিষদের পররাষ্ট্র বিষয়ক কমিটির ডেমোক্র্যাট চেয়ারম্যান এলিয়ট এঞ্জেল এ ঘটনাকে ‘লজ্জাজনক’ অ্যাখ্যা দিয়েছেন।

তবে রিপাবলিকান আইনপ্রণেতা থমাস মেসি জানিয়েছেন, ‘সে (আলেক্সান্ডার ভিন্ডম্যান) গোপনীয়তা লংঘনকারী, মোটেও কোনো হুইসেলব্লোয়ার নয়। যুক্তরাষ্ট্রের কমান্ডার ইন চিফ (প্রেসিডেন্ট) একজন সামান্য লেফটেনেন্ট কর্নেলের কাছ থেকে নির্দেশ নিতে পারেন না।’

 


ঢাকা, শনিবার, ফেব্রুয়ারী ৮, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ২০৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন