সর্বশেষ
বুধবার ১৪ই ফাল্গুন ১৪২৬ | ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

পানির উপর আস্ত শহর বানাচ্ছে যুক্তরাজ্য

বুধবার, ফেব্রুয়ারী ১২, ২০২০

1.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে দ্রুত গলছে বরফ। এতে করে অদূর ভবিষ্যতে পানির নিচে তলিয়ের যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বিশ্বের বড় বড় অনেক শহরের। সেই বাস্তবতা স্বীকার করে পানির উপর শহর গড়ার প্রকল্প হাতে নিয়েছে যুক্তরাজ্য। এরই মধ্যে পানির উপর শহর বানানোর নকশা তৈরি করে ফেলেছেন বিজ্ঞানীরা।

এই নকশা অনুযায়ী পানির উপরেই তৈরি হবে আস্ত শহর। সেখানে আবাসিক এলাকা, বাজার, মাঠ, স্কুলসহ একটি শহরের সবই থাকবে। খুব দ্রুতই এই নকশার প্রথম শহর নির্মাণের কাজ শুরু হবে এবং মানুষ বাস্তবে পানির উপর একটি আস্ত শহর দেখতে পাবেন। যুক্তরাজ্য সরকার ও কয়েকটি সংস্থার যৌথ প্রকল্পে তৈরি হবে এই শহর। খবর ডেইলি মেইলের।

উষ্ণায়নের ফলে সমুদ্রের জলস্তর বেড়ে গেলে যেসব অঞ্চলে বিপদ আসতে পারে, সেসব অঞ্চলের কথা ভেবেই এই শহর তৈরি করা হচ্ছে। সি-বেডের উপর তৈরি হবে ঘর। এক একটি নির্দিষ্ট অঞ্চলে ১০ হাজার মানুষ বসবাস করতে পারবেন। থাকবে বাজার, পার্ক ইত্যাদিও। আগেই এই পরিকল্পনার কথা প্রকাশ্যে এসেছিল। তবে এবার নির্দিষ্ট সময়সীমা দেওয়া হল। ১০ বছরের মধ্যেই তৈরি হবে এই শহর।

প্রজেক্টের এক কর্মকর্তা বলেছেন, শুনতে অদ্ভুত লাগলেও, সব কিছু ঠিক থাকলে একেবারে আসল শহরের মতই হবে এই শহর।

যেভাবে বরফ গলছে, তাতে বিশ্বের সব বড় শহরের ৯০ শতাংশ পর্যন্ত পানির তলায় চলে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই এই পরিকল্পনা।  স্থলভাগ থেকে এক কিলোমিটার দূরেই তৈরি হবে এই শহর, যাতে সমুদ্র অশান্ত হলে বাসিন্দাদের সরিয়ে আনা যায়। তবে সুনামি কিংবা হ্যারিকেনেও যাতে এই শহরে কোনো আঁচ না পড়ে তার জন্য ম্যাসাচুসেটস বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ওসান ইঞ্জিনিয়ারিং’ বিভাগের সঙ্গে আলোচনাও চলছে। এই শহরে উৎপাদন হবে শস্যও। যাতে বাইরে থেকে খাবার কেনার দরকার না পড়ে।

 


ঢাকা, বুধবার, ফেব্রুয়ারী ১২, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ৩৮৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন