সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ১৯শে চৈত্র ১৪২৬ | ০২ এপ্রিল ২০২০

গাজীপুরে সালমান শাহ'র ভাস্কর্য

শুক্রবার, ফেব্রুয়ারী ১৪, ২০২০

salma.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বাংলা চলচ্চিত্রে ধূমকেতুর মতো আগমন ঘটেছিলো চিত্রনায়ক সালমান শাহ্’র। প্রথম ছবি ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ দিয়েই করেছিলেন বাজিমাৎ। কিন্তু ১৯৯৬ সালে রহস্যজনক মৃত্যু হয় তার। মৃত্যুর ২৪ বছর কেটে গেলেও সালমান শাহকে আজও ভোলেনি ভক্তরা । সারাদেশ জুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে তাঁর অগণিত ভক্ত। তেমনি এক ভক্তের নাম মো. রাশেদুল ইসলাম (রাশেদ খান)।

রাশেদ প্রিয় নায়ককে আজও আইডল মানেন। তাকে ভালোবাসেন সেরা নায়ক হিসেবে। অনেকদিন ধরেই ইচ্ছে ছিলো প্রিয় নায়কের জন্য কিছু করবেন। অবশেষে বাড়ির পাশে গড়ে তুলেছেন সালমান শাহের সবচেয়ে সুপারহিট সিনেমা ‘স্বপ্নের ঠিকানা’ নামের একটি রিসোর্ট। সেখানে গড়েছেন অমর নায়ক সালমানের একটি নান্দনিক ভাস্কর্য।

বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে গাজীপুরের উলোখোলা থানার বীরতুল উত্তরপাড়ায় অবস্থিত এ রিসোর্টে মোড়ক উন্মোচন হলো সালমানের ভাস্কর্যের। এখানে উপস্থিত ছিলেন সালমানের প্রথম সিনেমা ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’- এর নির্মাতা সোহানুর রহমান সোহান। আরও ছিলেন সালমানের ‘সুজন সখী’ সিনেমার পরিচালক শাহ আলম কিরণ, ‘স্বপ্নের ঠিকানা’ সিনেমার সহকারী পরিচালক শিল্পী চক্রবর্তী।

স্বপ্নের ঠিকানার কর্ণধার রাশেদ ইসলাম বলেন, ‘স্বপ্নের ঠিকানা’র সামনেই ফাইবারে তৈরী সালমান শাহ্’র ভাস্কর্য। এটি তৈরি করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার শিক্ষার্থী পলাশ। প্রায় ৫ বিঘা জমির উপর ‘স্বপ্নের ঠিকানা’ নির্মাণ হয়েছে। সালমান শাহকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করে তারই জনপ্রিয় ছবি ‘স্বপ্নের ঠিকানা’র নামে শুটিং বাড়িসহ রিসোর্ট নির্মাণ করেছি।

তিনি আরও বলেন, বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে তিনি এই রিসোর্ট বানাননি। তবে কেউ শুটিং বা পিকনিকের জন্য চাইলে সুলভমূল্যে এটি ভাড়া নিতে পারবেন। এখানে দুটি দৃষ্টিনন্দন বাড়ি, নান্দনিক লোকেশনের ব্যবস্থা আছে। পাশাপাশি শিশুদের জন্যও আছে বিনোদনের নানা ব্যবস্থা।


ঢাকা, শুক্রবার, ফেব্রুয়ারী ১৪, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // রি সু এই লেখাটি ৪২০ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন