সর্বশেষ
শনিবার ১৬ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ | ৩০ মে ২০২০

জরায়ু ক্যান্সার প্রতিরোধে করণীয়

শুক্রবার, ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০২০

171.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

জরায়ুর মুখের ক্যান্সার মহিলাদের ক্যান্সারের মধ্যে দ্বিতীয় এবং মহিলাদের মৃত্যুর অন্যতম কারণ। এটি একটি মরণব্যাধি। সাধারণত ৪০ থেকে ৫৫ বছর বয়সের মহিলাদের মধ্যে এটির প্রকোপ বেশি।জরায়ু মুখ ক্যান্সার প্রতিরোধক টিকা এ রোগের দীর্ঘ প্রতিরোধে সক্ষম। এটি-ই একমাত্র ক্যান্সার যা টিকা প্রদানের মাধ্যমে প্রতিরোধ করা সম্ভব। ১০০ ধরনের এইচপিভি ভাইরাস আবিষ্কৃত হয়েছে। তার মধ্যে এইচপিভি ১৬, ১৮, ৬ ও ১১ জরায়ু ক্যান্সারের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ।এছাড়া দৈনন্দিন জীবনের কিছু অভ্যাস পরিবর্তনের মাধ্যমে আমরা এই রোগের প্রতিরোধ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারি।

হালকা গরম পানি:
প্রয়োজনে গোপনাঙ্গের আশেপাশে অর্গানিক সাবান ব্যবহার করা যেতে পারে৷ তবে যোনি বা লিঙ্গে শুধু হালকা গরম পানির ব্যবহারই যথেষ্ট।

সুতির আন্ডার প্যান্ট:
নারী-পুরুষ সকলেরই সুতি কাপড়ের আন্ডার প্যান্ট পরা উচিত৷ সিন্থেটিক কাপড় থেকে অ্যালার্জিসহ নানা সমস্যা হতে পারে৷ বিভিন্ন ধরনের লেস বা কাপড়ের আন্ডার গারমেন্টস যৌনাঙ্গের জন্য তা উপকারী নয়৷

পরিচ্ছনতার উপকার:
যৌনাঙ্গ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখলে যে শুধুমাত্র স্বাস্থ্যকর যৌনমিলনের আনন্দ পাওয়া যায়, তা-ই নয়, মানসিক ও শারীরিকভাবেও মানুষ সুস্থ বোধ করেন।

নতুন আন্ডারওয়ার:
নারী, পুরুষ কারোরই কখনো অন্তর্বাস না ধুয়ে পরা উচিত নয়৷ এতে যৌনাঙ্গে সংক্রমণ বা অ্যালার্জি হওয়ার আশঙ্কা থাকে৷ এই নিয়ম অবশ্য সব বয়সের মানুষের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য৷

টাইট অন্তর্বাস না পরা:
এমন অন্তর্বাস পরা একেবারেই উচিত নয়। কারণ, এতে রক্ত চলাচল যেমন বাধাগ্রস্ত হয়, তেমনি বাতাস আসা-যাওয়ায় বিঘ্ন ঘটার কারণে যৌনাঙ্গে দুর্গন্ধ হতে পারে সহজেই৷

দুর্গন্ধ ও সংক্রমণ এড়াতে:
যৌনাঙ্গে পানি ব্যবহারের পর অবশ্যই জায়গাটুকু টাওয়েল দিয়ে মুছে ফেলতে হবে। তা না হলে দুর্গন্ধ এবং মূত্রনালীতে ফাঙ্গাস হতে পারে।


ঢাকা, শুক্রবার, ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ১০০১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন