সর্বশেষ
শনিবার ১৬ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ | ৩০ মে ২০২০

দক্ষিণ কোরিয়ার সহায়তা চেয়েছে শতাধিক দেশ

বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২, ২০২০

sk1.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

২০ জানুয়ারি দক্ষিণ কোরিয়া প্রথম নোভেল করোনা ভাইরাসের সন্দেহভাজন রোগী দেখা যায়। দেশটিতে মোট ৯ হাজার ৫৮৩ জন করোনায় আক্রান্ত হন, যাদের মধ্যে ১৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছে; কিন্তু গত তিন সপ্তাহ ধরে সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ১০০ বা তার নিচে রয়েছে। বেশি বিপর্যয় সৃষ্টির আগেই নোভেল করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় দক্ষিণ কোরিয়ার নেওয়া কার্যকর পদক্ষেপ খুবই প্রশংসিত হয়।

করোনা ভাইরাস পরীক্ষায় সহযোগিতার জন্য ১২১টি দেশের কাছ থেকে অনুরোধ পেয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বুধবার এ কথা জানিয়েছেন।কূটনৈতিক কারণে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ঐ কর্মকর্তা বলেন, ‘যেহেতু আমরা শুরুর দিকে ছড়িয়ে পড়ার অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি, তাই বিভিন্ন দেশের কাছ থেকে এত বেশি অনুরোধ পাচ্ছি।’

কোন কোন দেশ দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে ঐ সহযোগিতার জন্য অনুরোধ করেছে, তা অবশ্য বলেননি ঐ কর্মকর্তা। তবে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার কিট নির্মাতা দক্ষিণ কোরীয় প্রতিষ্ঠানগুলো এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্যগুলো এবং ইতালিসহ অন্যান্য দেশের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে।আগ্রাসী ও টেকসই পরীক্ষা পদ্ধতি ব্যবহার করে দক্ষিণ কোরিয়া করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের গতি শ্লথ করে। বিশ্বের যে কোনো দেশের তুলনায় তাদের গড় পরীক্ষার হার সবচেয়ে বেশি। গত জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত অন্তত ২ লাখ ৫০ হাজার মানুষের শারীরিক পরীক্ষা করেছেন দক্ষিণ কোরিয়ার স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। উপসর্গ না থাকলেও অন্যকে সংক্রমিত করতে পারেন—এমন লোকদের পরীক্ষা করা, নিশ্চিত রোগীদের বিচ্ছিন্ন করে রাখা এবং তাদের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের শনাক্ত করার মতো বিস্তৃত কর্মসূচি নিয়েছিল দেশটি।

সূত্র: রয়টার্স


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // রি সু এই লেখাটি ২২৫১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন