সর্বশেষ
শুক্রবার ২২শে জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ | ০৫ জুন ২০২০

বিরল উপসর্গে আক্রান্ত শিশুদের সংখ্যা বেড়েছে

শুক্রবার, মে ১৫, ২০২০

3.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

শিশুদের বিরল প্রদাহজনিত উপসর্গ নিয়ে সতর্কতা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র। বৃহস্পতিবার মার্কিন প্রশাসনের পক্ষ থেকে এমনটি জানানো হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার্স ফর ডিজিজ এন্ড প্রিভেনশন এই বিরল উপসর্গের নাম দিয়েছে মাল্টিসিস্টেম ইনফ্লাম্মাটরি সিনড্রোম ইন চিলড্রেন। গত এপ্রিলে যুক্তরাজ্যে প্রথম শিশুদের মধ্যে এই উপসর্গ দেখা দেয়।

ধারণা করা হচ্ছে, করোনা ভাইরাসের কারণে শিশুরা এই উপসর্গে আক্রান্ত হচ্ছে। যদিও এটি এখনো প্রমাণিত নয়।যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত এই বিরল উপসর্গে আক্রান্ত হয়ে তিন শিশুরর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া এই উপসর্গে আক্রান্ত হয়েছে ৮৫ জন শিশু। এছাড়া যুক্তরাজ্যেও এই বিরল উপসর্গে আক্রান্ত হয়ে শিশু মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের পর এবার ফ্রান্স এবং ইতালিতেও বেড়েছে বিরল প্রদাহজনিত উপসর্গে আক্রান্ত শিশুদের সংখ্যা। যুক্তরাজ্যভিত্তিক প্রভাবশালী চিকিৎসা সাময়িকী ল্যানচেটের একটি প্রতিবেদনে এমনটি বলা হয়েছে।

ফ্রান্স এবং ইতালির চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে ল্যানচেটের প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনা মহামারির মধ্যে টক্সিক শক ও কাওয়াসাকি রোগের লক্ষণের মতো কিছু উপসর্গ নিয়ে ভুগছে শিশুরা। এ উপসর্গের মধ্যে আছে- রক্তনালীতে প্রদাহ ও হৃদযন্ত্রে মারাত্মক ক্ষতি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ইতালির বার্গামোতে ফেব্রুয়ারির ১৮ থেকে এপ্রিলের ২০ তারিখ পর্যন্ত ১০ জন শিশু এই বিরল উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। গত ১০ বছরে চিকিৎসকরা ইতালিতে মাত্র ১৯টি কাওয়াসাকি রোগী শনাক্ত করেছে। যার মধ্যে ১০ জন এই বছরই শনাক্ত হয়েছে।


ঢাকা, শুক্রবার, মে ১৫, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // রি সু এই লেখাটি ১২১৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন