সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ২২শে শ্রাবণ ১৪২৭ | ০৬ আগস্ট ২০২০

বর্ষাকালে কিডনির সংক্রমণ রুখবেন যেভাবে

মঙ্গলবার, জুন ১৬, ২০২০

images-7-1.jpeg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বিভিন্ন ঋতুতে সুবিধার সঙ্গে সঙ্গে আমাদের জীবনে বেশ কিছু অসুবিধাও দেখা দেয়। মানব শরীরে দেখা মেলে নতুন নতুন রোগের। এই যেমন চলছে বর্ষাকালের দেখা মিলেছে। আর বর্ষায় ম্যালেরিয়া, লেপটোসপিরোসিস, ডেঙ্গু, টাইফয়েড, হেপাটাইটিস এ, হেপাটাইটিস ই-এর মতো রোগ বেশি হয়। বাড়াবাড়ি হলে কিডনি ফেলইয়োর হয়ে মৃত্যু পর্যন্ত ঘটতে পারে।

এখন ঘরে ঘরে কিডনির সমস্যা। বর্ষাকালে কিডনির সংক্রমণ অন্য ঋতুর চেয়ে বেশি হয় সাধারণত। কিন্তু দেহের সার্বিক সুস্থতার জন্য কিডনি সুস্থ থাকা খুব দরকার। দেহের যত দূষিত তরল রয়েছে, সব পরিস্রুত করে দেহকে পরিষ্কার রাখা কিডনির আসল কাজ। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে কিডনির।

ভারতের কুচবিহারের নেফ্রোপ্লাস ডায়ালিসিস সেন্টারের নেফ্রোলজিস্ট ডঃ অজিত কুমার সিং জানান, বর্ষাকালে অতিরিক্ত বৃষ্টিপাতের জন্য এবং আবহাওয়ার জন্য মশা মাছি বেড়ে যাওয়ার ঘটনা খুব স্বাভাবিক। সে কারণেই বর্ষায় ম্যালেরিয়া, লেপটোসপিরোসিস, ডেঙ্গু, টাইফয়েড, হেপাটাইটিস এ, হেপাটাইটিস ই-এর মতো সংক্রমক রোগ বেশি হয়। এই সমস্ত রোগে কিডনির প্রদাহ হয়। কিডনি ফুলে যায়। বাড়াবাড়ি হলে কিডনি ফেলইয়োর হয়ে মৃত্যু পর্যন্ত ঘটতে পারে।

কিডনি সুস্থ রাখতে যে বিষয়গুলো খেয়াল করবেন-

.আপনার চারপাশ পরিচ্ছন্ন রাখুন। যে সমস্ত জায়গা ঘনঘন ব্যবহার করতে হচ্ছে, বারবার পরিষ্কার করুন। বর্ষাকালে পানি থেকে সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি হয়। ফিল্টারের পানি খান অথবা পানি ফুটিয়ে নিন।

.এই সময়ে বাইরের খাবার এ চেষ্টা করবেন। বাড়িতে রান্না করা খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। রাস্তা অথবা বাইরের খাবারে কী পানি ব্যবহার করা হচ্ছে, আপনি জানতে পারছেন না।

.খাবার খাওয়ার আগে এবং পরে ভালো করে হাত ধোবেন। যেকোনোও ইনফেকশন সবচেয়ে বেশি ছড়ায় হাত থেকে।

.বৈদ্যুতিক গ্যাজেট থেকেও খুব বেশি সংক্রমণ হয়, তাই বিশেষ করে বর্ষাকালে গ্যাজেট পরিষ্কার রাখবেন।
ফল কাটার সঙ্গে সঙ্গেই খেয়ে নিন। আর এই সময়ে ফলের খোসা ছাড়িয়ে খাবেন। বর্ষাকালে ফলের বাইরে প্রচুর জীবাণু থাকে, পানি দিয়ে ধোয়ার পরেও যায় না।

.বর্ষাকালে বৃষ্টি ভেজার লোভ সামলানো খুব কঠিন। শুধু মাথায় রাখুন, বৃষ্টিতে ভিজে বাড়ি ফেরার সঙ্গে সঙ্গে গোসল করে নিন। গোসলের আগে বাড়ির কিছু জিনিস স্পর্শ করবেন না।

.বাইরে থেকে ঘরে ঢোকার সময় অবশ্যই জুতো খুলে নিন। এই সময় বাইরের জুতো পরিষ্কার না করে কোনও অবস্থাতেই ঘরে আনবেন না।

.বর্ষাকালে সুগার লেভেল নিয়মিত নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। শরীরের গ্লুকোজ লেভেল বেড়ে গেলে এই সময় কিডনির ভয়ঙ্কর ক্ষতি হয়।


ঢাকা, মঙ্গলবার, জুন ১৬, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৪০৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন