সর্বশেষ
সোমবার ১১ই কার্তিক ১৪২৭ | ২৬ অক্টোবর ২০২০

বাবরি মসজিদ মামলায় আদবানিসহ ৩২ জন আসামি বেকসুর খালাস

বুধবার, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০

14.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বাবরি মসজিদ ধ্বংস পূর্ব পরিকল্পিত ছিল না, আচমকা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন লখ্‌নৌয়ের বিশেষ সিবিআই আদালত। তাই বিজেপি নেতা এলকে আদভানি. মুরলিমনোহর যোশী, উমা ভারতীসহ ৩২ আসামিকেই বেকসুর খালা দেওয়া হয়েছে।

আজ বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) লখনৌয় সিবিআইয়ের এক বিশেষ আদালতের বিচারক সুরেন্দ্রকুমার যাদব এ রায় দেন।  অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে প্রমাণের অভাব রয়েছে বলে জানান বিচারক।

বাবরি মসজিদ ধ্বংস পূর্ব পরিকল্পিত নয় বলেও জানিয়েছেন বিচারক সুরেন্দ্রকুমার। এসময় তিনি বলেন, অভিযুক্তরা মসজিদ ভাঙায় বাধা দিয়েছিলেন।

আজ সকাল থেকে এ রায়ের দিকে তাকিয়ে ছিল গোটা ভারত। সকালে মামলায় অভিযুক্ত মোট ৩২ জনের মধ্যে ২৬ জন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। আসেননি সাবেক উপ-প্রধানমন্ত্রী লালকৃষ্ণ আদভানি ও উত্তরপ্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী কল্যাণ সিং, বিজেপি নেত্রী উমা ভারতী, সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুরলি মনোহর যোশী, বিনয় কাটিহারসহ দু’জন। তবে ইন্টারনেটের মাধ্যমে রায় দেওয়ার সময় আদালতে যুক্ত ছিলেন তারা। 

প্রসঙ্গত, ১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর বাবরি মসজিদ ধ্বংসের পর নানা নথি এবং লখ্‌নৌতে ২৫০ জন ও রায়বেলিতে ৫০ জন, সব মিলিয়ে ৩০০ জনের বয়ান রেকর্ড করা হয়েছিল। তাতে কেউ বলেনি এ মসজিদ ভাঙার পেছনে কোনো নেতার হাত ছিল।

প্রবীণ বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আদবানি, মুরলিমনোহর জোশী, উমা ভারতীর মতো নেতা-নেত্রীদের বিরুদ্ধে মসজিদ ভাঙার ষড়যন্ত্র, পরিকল্পনা ও উস্কানি দেওয়ার অভিযোগ ছিল। তবে প্রায় তিন দশক ধরে চলা মামলায় আজ আদালত তাদের খালাস দিয়েছে।


ঢাকা, বুধবার, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // এস বি এই লেখাটি ৩৫৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন