সর্বশেষ
শুক্রবার ১৩ই অগ্রহায়ণ ১৪২৭ | ২৭ নভেম্বর ২০২০

মাটির নিচে মিলল স্বামী-স্ত্রী-সন্তানের মরদেহ

শুক্রবার, অক্টোবর ৩০, ২০২০

18.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে বাড়ি থেকে রহস্যজনকভাবে নি‌খোঁজের একদিন পর ঘ‌রের পা‌শে মা‌টি চাপা দেয়া অবস্থায় স্বামী, স্ত্রী ও তাদের ১২ বছর ব‌য়সী শিশুপু‌ত্রের মৃত‌দেহ উদ্ধার ক‌রে‌ছে পু‌লিশ। এ ঘটনায় নিহত আসাদের ভাই-দুই বোন ও ভগ্নিপতিকে আটক করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার বনগ্রাম ইউনিয়নের জামষাইট এলাকা থেকে গলাকাটা মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলেন- কটিয়াদীর বনগ্রাম ইউনিয়নের জমশাইট গ্রামের মৃত মীর হোসেনের ছেলে মো. আসাদ মিয়া (৫৫), তার স্ত্রী পারভিন (৪৫) ও তাদের আট বছর বয়সী ছেলে লিয়ন। নিহত মো. আসাদ মিয়া জমশাইট বাজারের ব্যবসায়ী। মোফাজ্জল (২৫) ও তোফাজ্জল (১৩) নামে তাদের আরও দুটি ছেলে ছিল। ওরা বাড়িতে না থাকায় প্রাণে বেঁচে যায়।

পুলিশ জানায়, পারিবারিক বিরোধের জেরে এ চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ড হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত আসাদের ভাই, দুই বোন ও এক বোনের স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, নিহত আসাদ ও তার স্ত্রী পারভিন এবং ছেলে লিয়ন প্রতিদিনের মতো ঘুমাতে যায়। সকালে আসাদের মেজো ছেলে তোফাজ্জল নানার বাড়ি থেকে ফিরে বাড়িতে গিয়ে বাবা-মা ও ছোট ভাইকে পায়নি। আত্মীয়স্বজনের কাছে জিজ্ঞেস করলেও তারা কোনও তথ্য দিতে পারেনি। পরে সে পুলিশের কাছে গেলে পুলিশে নিখোঁজদের সন্ধানে মাঠে নামে। রাত ৯টার দিকে বাড়ির পেছনে একটি নির্জন স্থানের গর্ত থেকে একটি হাত দেখা যাওয়ার পর এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ বলেন, তিন জনকে হত্যা করা হয়েছে। আমরা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কয়েকজনকে নিয়ে এসেছি। বিয়ষটি নিয়ে তদন্ত করা হবে; আশা করি দোষীরা ধরা পড়বে।


ঢাকা, শুক্রবার, অক্টোবর ৩০, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // এস বি এই লেখাটি ৪৯২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন