সর্বশেষ
শনিবার ৯ই আষাঢ় ১৪২৫ | ২৩ জুন ২০১৮

ফিনল্যান্ডে উচ্চ শিক্ষার সুযোগ

মঙ্গলবার, মে ২৬, ২০১৫

1737428723_1432625714.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
পৃথিবীর সর্বাপেক্ষা উন্নত দেশগুলোর মধ্যে ফিনল্যান্ড অন্যতম। উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রেও দেশটি অত্যন্ত অগ্রসর। আর তাই আমাদের দেশের শিক্ষার্থীরাও উচ্চ শিক্ষার জন্য ফিনল্যান্ডে যেতে বর্তমানে অনেক বেশী আগ্রহী।

ফিনল্যান্ডের উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে যেসব ডিগ্রী দেয়া হয় সেগুলো নিম্নরুপ:  

১.    ব্যাচেলর ডিগ্রী
২.    মাষ্টার্স ডিগ্রী
৩.    ডক্টরেট ডিগ্রী
     

দুটি সেমিষ্টারে ফিনল্যান্ডের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ছাত্রছাত্রী ভর্তি করা হয়। এগুলো হচ্ছে-  

    শরৎকালীন (Autumn) সেমিষ্টার: আগষ্ট থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত
    বসন্তকালীন  (Spring) সেমিষ্টার: জানুয়ারী থেকে জুলাই

 
বিভিন্ন কোর্সের জন্য প্রয়োজনীয় শিক্ষাগত যোগ্যতা, ভাষাগত যোগ্যতা ও কোর্সের মেয়াদ নিচে দেয়া হলো:

কোর্সের নাম-                    শিক্ষাগত যোগ্যতা                      

(১) ব্যাচেলর ডিগ্রী               কমপক্ষে ১২ বৎসর মেয়াদী শিক্ষা

(২) মাষ্টার্স                       কমপক্ষে ১৬ বৎসর মেয়াদী শিক্ষা

(৩) ডক্টরেট                      মাষ্টার্স/এম.ফিল

(১) ব্যাচেলর ডিগ্রীর জন্য ভাষাগত যোগ্যতা

মেয়াদী শিক্ষা অধিকাংশ ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের ফিনিশ অথবা সুইডিশ ভাষার উপর ভালো দখল থাকতে হবে। তবে ইংরেজী মাধ্যমে শিক্ষাদান প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোতে ভর্তির জন্য আই ই এল টি এস স্কোর ৫.৫-৬ এবং টোফেল এর ক্ষেত্রে সিবিটি- ১৭৩-২১৩ অথবা আইবিটি ৬১-৮০ থাকতে হবে।

(২) মাষ্টার্স এর জন্য ভাষাগত যোগ্যতা

অধিকাংশ ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের ফিনিশ অথবা সুইডিশ ভাষার উপর ভালো দখল থাকতে হবে। তবে ইংরেজী মাধ্যমে শিক্ষাদান প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোতে ভর্তির জন্য আই ই এল টি এস স্কোর ৫.৫-৬ এবং টোফেল এর ক্ষেত্রে সিবিটি- ১৭৩-২১৩ অথবা আইবিটি ৬১-৮০ থাকতে হবে।

(৩) ডক্টরেট এর জন্য ভাষাগত যোগ্যতা

ইংরেজী ভাষায় পূর্ন দখল

মেয়াদ

(১) ব্যাচেলর ডিগ্রী:  ৩-৪ ভৎসরের পূর্নকালীন স্টাডি

(২) মাষ্টার্স: ২ বৎসরের পূর্নকালীন স্টাডি

(৩) ডক্টরেট: ৪ বৎসরের পূর্নকালীন স্টাডি
 
ব্যাচেলর অব মাষ্টার্স পর্যয়ের বিষয়সমূহ:


ফিনল্যান্ডের উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে আপনি অধ্যয়নের জন্য বেছে নিতে পারেন নিম্নের ব্যাপকসংখ্যক বিষয় থেকে যে কোন একটি:

*    ইতিহাস
*    প্রত্নতত্ত্ব
*    তুলনামূলক ধর্মতত্ত্ব
*    সাংস্কৃতিক নৃবিদ্যা
*    ইউরোপীয় বিবর্তনবাদ
*    ফোকলোর
*    জীবন দর্শন
*    কলাবিদ্যার ইতিহাস
*    তুলনামূলক সাহিত্য
*    ফিনিশ সাহিত্য ও সংস্কৃতি
*    সাধরণ ভাষাতত্ত্ব
*    হাঙ্গেরীয় ভাষা ও সংস্কৃতি
*    ধ্বনিতত্ত্ব
*    ফ্রেঞ্চ স্টাডিজ
*    পরিবেশ বিজ্ঞান
*    রাশিয়ান স্টাডিজ
*    প্রানরসায়ন ও রাসায়নিক জীববিদ্যা
*    কম্পিউটার সায়েন্স
*    ফরেনসিক মডিসিন
*    অর্থনীতি
*    পরিসংখ্যান ইত্যাদি

আবেদন প্রক্রিয়া:

 *   আপনি সরাসরি যে কোন বিশ্বিবদ্যালয়ের এডমিশন অফিসে মেইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন।
 *   বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকেও আবেদনপত্র সংগ্রহ করা যেতে পারে।
 *    কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ে অন-লাইনে আবেদন করার সুযোগ রয়েছে।
 *   ভর্তি  প্রক্রিয়ার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম সাধারনত ১ বৎসর সময় হাতে রেখে শুরু করতে হয়।
 *   সাধারণত আবেদনের সময়সীমা শেষ হওয়ার ৬-৮ মাসের মধ্যে কর্তৃপক্ষ তাদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেন।
     
প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:

*    সকল শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্র ও মার্কসীটের ইংরেজী ভার্সন
*    সর্বশেষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাড়পত্র
*    ভাষাগত যোগ্যতার প্রমানপত্র
*    রেফারেন্স লেটার
*    পাসপোর্টের ফটোকপি
*    সকল দলিল অবশ্যই একজন নোটারী পাবলিক কর্তৃক সত্যায়িত হতে হবে।

শিক্ষা ব্যয়:

উচ্চ শিক্ষার ক্ষেত্রে ফিনল্যান্ডে সাধারনত কোন টিউশন ফি পরিশোধ করতে হয় না।
 
জীবনযাত্রার ব্যয়:

আবাসন, আহার ও অন্যান্য আনুষাঙ্গিক প্রয়োজনে মাসিক প্রায় ৪০০ মার্কিন ডলার ব্যয় হয়। স্বাস্থ্যসেবার জন্য বাৎসরিক ২৫ থেকে ৭৫ ডলার পরিশোধ করতে হয়।

কাজের সুযোগ:

ফিনল্যান্ডে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রছাত্রীর সপ্তাহে সর্বোচ্চ ২০ ঘন্টা কাজের সুযোগ পেয়ে থাকেন। যদি আপনি ফিনিশ, নরওয়েজিয়ান, রাশিয়ান অথবা সুইডিস ভাষা না জানেন, তাহলে ফিনল্যান্ডে কাজ যোগাড় করা প্রকৃতপক্ষেই কঠিন।



ঢাকা, মঙ্গলবার, মে ২৬, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // আর কে এই লেখাটি ২৭৩৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন