সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৬ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ২০ নভেম্বর ২০১৮

জাফর শ্রাবণের সাথে ‘রং ওয়ে’ নিয়ে কিছু কথা

শনিবার, জানুয়ারী ২, ২০১৬

1394844605_1451740085.jpg
বিনোদন রিপোর্ট :
বিশিষ্ট নাট্য নির্মাতা ও অভিনেতা জাফর শ্রাবণ। ১৯৯৬ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত মঞ্চ নাটকের মাধ্যমে নিজের ক্যারিয়ার শুরু করেন। তার উল্লেখযোগ্য নির্মিত নাটকগুলোর মধ্যে রয়েছে- ‘এইতো আমি’, ‘রুপালি রুপা’, ‘ভালোবাসা এক্সপ্রেচা’, ‘শেষ বিকালের বৃষ্টি’, ‘সুপ্তির স্বপ্ন’ ইত্যাদি।

জাফর শ্রাবণের নির্মিত প্রথম নাটক ‘এইতো আমি’। এতে অভিনয় করেন জনপ্রিয় অভিনেতা আরিফিন শুভ। বর্তমানে তিনি বড়পর্দা নিয়ে কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করলেন। সম্প্রতি তিনি মাসুম রুবেলের ‘রং ওয়ে’ শিরোনামের নতুন একটি ছবিতে খলনায়কের ভূমিকায় অভিনয়ও করেন। ‘রং ওয়ে’ ছবির বিভিন্ন দিক নিয়ে কথা হয় জাফর শ্রাবণ ভাইয়ের সাথে।

ছবিটি নিয়ে আপনার প্রত্যাশা কেমন?

মুভি একটা মানুষের স্বপ্ন। একটা স্বপ্ন যে মানুষকে ঘুমাতে দেয় না তা আরেকটিবার প্রমাণ করল মাসুম রুবেল। ছবিটা যেমনি হোক না কেন পুরো ইউনিটের একটা পাগলামি ছিল। একটা যুবকের মাথায় এটা কাজ করলো যে পর্ণ সমাজটাকে ধ্বংস করছে, যে করে হোক এটাকে ভাঙ্গতে হবে। সত্যি অসাধারণ একটি গল্প। আশা করি বর্তমান তরুণ সমাজ এর থেকে ভালো কিছু শিখতে পারবে।

আপনি কি মনে করেন, ছবিটা কতটুকু সাড়া জোগাবে?

ছবিটিতে সচেতনতামূলক একটা টাচ রয়েছে। সবচেয়ে বড় কথা হল এর একটা গোল রয়েছে। এখন দেখার বিষয় দর্শকরা ছবিটিকে কিভাবে নেয়। একটা ছবির সার্থকতা দর্শকের উপর নির্ভর করে। আর আমরাও চাই ফিল্মের উন্নতি করার জন্য, ফিল্ম ধ্বংস করা মানে দর্শক ধ্বংস করা।

মাসুম রুবেলের এই প্রথম ছবি, উনি কি তার আউটপুটটা বের করতে পেরেছেন?

ছবি করবে এটাই রুবেলের স্বপ্ন। তার মাথায় ছবির পোকা আছে যার সাথে সে রাহাত বাপ্পিকে জড়িয়েছে। এই যে তার এগিয়ে যাওয়ার কর্মপন্থাটা এটা আমার কাছে অনেক ভালো লেগেছে। এর আউটপুট কি হবে না হবে তা সময় বলে দেবে।

মেকিং টা কেমন হলো, আপনি কি মনে করেন?

ইদানিং কালে আমরা দর্শকদের বোকা ভাবতেছি। আমরা মনে করি যে ফাস্ট মোশনের কিছু কাজ, মসলাদার গান, মসলাদার দৃশ্য দিয়ে দর্শদের খাওয়ানো যাবে। কিন্তু রুবেল অন্য ওয়েতে ভাবছে আমার কেমন জানি মনে হয়। অন্যদের মত করে না। আসলে একটা ছবির মেকিং নির্ভর করে একটা গল্পের উপর। গল্পই বলে দেয় মেকিংটা আমি কিভাবে করবো। ‘রং ওয়ে’ যে গল্পটা এটা তার ফাস্ট কাজ। আমার কাছে কেমন জানি মনে হয় সমসাময়িক যে মেকিং গুলো আছে তার থেকে এটা ফেলে দেওয়ার মত না।

ছবিটিতে কাজ করলেন, পরবর্তী আর কোনো কাজ করার ইচ্ছা আছে কিনা?

আসলে আমার জীবনটাই আক্ষরিক অর্থে শুরু করতে চেয়েছি অভিনয়ের মধ্য দিয়ে। ১৯৯৬-২০০৩ সাল পর্যন্ত মঞ্চ নাটকে অভিনয় করি। পরে বাইরে যাওয়া হয় সেখান থেকে এসে ফিল্মের উপর অনার্স মাস্টার শেষ করি। বেশ কিছু টেলিভিশন নাটক নিয়ে কাজ করা হয়। এখন ছবি তৈরিতে মনোযোগ দিচ্ছি। তবে অভিনয়ের যে একটা পোকা সেটা আমাকে এখনো খোঁচায়।

ঢাকা, শনিবার, জানুয়ারী ২, ২০১৬ (বিডিলাইভ২৪) // আর এ এই লেখাটি ৯৭৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন