সর্বশেষ
শুক্রবার ৮ই আষাঢ় ১৪২৫ | ২২ জুন ২০১৮

পোশাকে বৈশাখী কারুকাজ

শুক্রবার, মার্চ ৩১, ২০১৭

253567420_1490934547.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
আসছে বৈশাখ। উৎসবের পোশাকে বাঙালিয়ানা তুলে ধরতে ফ্যাশন হাউসগুলো ব্যবহার করেছে নানা কারুকাজ।

পোশাকে লাল-সাদার পাশাপাশি রয়েছে সবুজ, হলুদ, নীল, বেগুনী, কমলাসহ নানা রঙের বাহার। দেখা গেছে, পোশাকের নকশায় চিরায়ত বাংলার আবহ। কচি সবুজ রং প্রাধান্য পেয়েছে অনেক পোশাকে।

নকশিকাঁথার কাজ, কাঁথা ফোঁড়, ব্লকপ্রিন্ট, হাতের কাজ, দেশীয় নানা মোটিফ—ঘুড়ি, ফুল, কলস, হাতপাখা ও পাখি ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। সুতি, লিনেন, মসলিন ও সিল্কের কাপড় ব্যবহার করা হয়েছে পোশাকে। ছেলেদের ফতুয়া, পাঞ্জাবি, শার্ট, টি-শার্ট এবং তরুণীদের কুর্তা ও ফতুয়ায় প্রাধান্য পেয়েছে দেশীয় মোটিফ। শিশুদের জন্য রয়েছে রকমারি সব পোশাক।

শাড়িটা সাদামাটা হোক কিংবা জমকালো, এখন ব্লাউজটা হওয়া চাই ভিন্ন ধাঁচের। ফ্যাশন-সচেতন সব নারীই এখন মনোযোগ দিচ্ছেন বৈচিত্র্যময় ও সুন্দর ব্লাউজের দিকে।

ব্লাউজের ডিজাইনে হাই নেক, বোট নেক, পেছনে কাটা, সামনে ও পেছনে ‘ভি’ আকৃতির কাটের চল দেখা যাচ্ছে। স্লিভলেস ও কনুই পর্যন্ত হাতার ব্লাউজের সঙ্গে ফুলহাতার ব্লাউজও হবে ফ্যাশনেবল। ফুলের নকশার ব্লাউজ সাথে বিপরীত রঙের নেটের হাতা  ব্লাউজও ভালো চলছে।

বৈশাখে ছেলেরাও বাঙালি ধাঁচের পোশাকে নিজেদের সাজায়। এক্ষেত্রে সকলের প্রথম পছন্দ পাঞ্জাবী। গরমের সময় পাঞ্জাবী বেশ আরামদায়ক পোশাক। আজকাল অনেক ফ্যাশন হাউজে শুধুমাত্র বৈশাখকে সামনে রেখে নানা কারুকাজে তৈরি করে বৈশাখী পোশাক। সাদা ও লালের মিশ্রণে, কিংবা শুধু সাদা অথবা লাল কাপড়ের পাঞ্জাবী বেশ ভালো মানায় ছেলেদের। তবে ইদানীং শুধু লাল ও সাদায় থেমে মেই বর্ষবরণ। হলুদ, সবুজ ও নীল রঙের ছড়াছড়িও দেখা যায় বৈশাখে।

ছোটদের রয়েছে নানা রঙয়ের বাহারী পোশাক। তবে এই সময়ে গরমের কথা মাথায় রেখে অধিকাংশ পোশাক তৈরি করা হয়েছে আরামদায়ক পাতলা সুতি ও খাদি কাপড় ব্যবহার করে।

ঢাকা, শুক্রবার, মার্চ ৩১, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ১১৯৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন