সর্বশেষ
শনিবার ৮ই বৈশাখ ১৪২৫ | ২১ এপ্রিল ২০১৮

বঙ্কিমচন্দ্রের ১২৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

শনিবার, এপ্রিল ৮, ২০১৭

99588634_1491620194.png
বিডিলাইভ ডেস্ক :
বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় প্রথম আধুনিক বাংলা ঔপন্যাসিক। বাংলা সাহিত্যে অসামান্য অবদানের জন্য তাকে ‘বাংলা সাহিত্যের সম্রাট’ বলেও অভিহিত করা হয় তাকে। আজ ৮ এপ্রিল ১২৩তম মৃত্যুবার্ষিকী তার।

পশ্চিম বাংলার কাঠালপাড়া গ্রামে ১৮৩৮ সালে ২৭ জুন জন্মগ্রহণ করেন বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়। জন্মের পর ছয় বছর বঙ্কিমচন্দ্র কাঁটালপাড়াতেই অতিবাহিত করেন। পাঁচ বছর বয়সে কুল-পুরোহিত বিশ্বম্ভর ভট্টাচার্যের কাছে বঙ্কিমচন্দ্রের হাতেখড়ি হয়। শিশু বয়সেই তার অসামান্য মেধার পরিচয় পাওয়া যায়। হুগলী মোহসীন কলেজ ও প্রেসিডেন্সি কলেজে তিনি লেখাপড়া করেন।

১৮৫৮ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কৃতিত্বের সঙ্গে বিএ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। নব প্রতিষ্ঠিত কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় হতে সেদিন যারা গ্রাজুয়েট হওয়ার সৌভাগ্য অর্জন করেন বঙ্কিচন্দ্র তাদের একজন। বঙ্কিমচন্দ্রের জীবন দীর্ঘ নয়, কিন্তু কর্মকীর্তি বিপুল।

১৮৫২ সালে সংবাদ প্রভাকর কবিতা লিখে তিনি সাহিত্যচর্চা শুরু করেন। ১৮৫৬ সালে তার কাব্যগ্রন্থ ললিতা পুরাকালিক গল্প তথা মানস প্রকাশিত হয়। এরপর কাব্যচর্চা ত্যাগ করে তিনি উপন্যাস রচনায় মনযোগ দেন।

মোগল-পাঠান যুদ্ধ ও প্রেম অবলম্বনে তার প্রথম উপন্যাস দুর্গেশনন্দিনী ১৮৬৫ সালে প্রকাশিত হয়। এটি ইংরেজি রোমান্সের আদলে রচিত বাংলা সাহিত্যের প্রথম রোমান্টিক উপন্যাস হিসেবে পরিচিত। এ রচনার মাধ্যমে একদিকে যেমন তার মৌলিক প্রতিভা বিকাশের পথের সন্ধান পান, অন্যদিকে তেমনি বাঙালি মন এক অভিনব সাহিত্যশিল্প রসাস্বাদন করতে সক্ষম হয়েছেন।

কপালকুণ্ডলা তার দ্বিতীয় উপন্যাস। সামাজিক সমস্যা নিয়ে তিনি রচনা করেন বিষবৃক্ষ ও কৃষ্ণকান্তের উইল। আরো উপন্যাসগুলো হচ্ছে: কপালকুন্ডলা, মৃণালিনী, আনন্দমঠ প্রভৃতি।

ধর্ম, দর্শন, সাহিত্য, ভাষা, সমাজ ইত্যাদি বহু বিষয়ের তিনি প্রবন্ধ রচনা করেন। তিনি বাংলা ভাষার আদি সাহিত্যপত্র বঙ্গদর্শনের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ছিলেন। কমলাকান্ত নামেও তিনি লিখতেন।

মধ্যবিত্ত শ্রেণিতে তিনি এতটাই আলোড়িত করেছিলেন যে, সমকাল ও উত্তরকালের মানুষ তাকে সাহিত্য সম্রাটতো বটেই ঋষি বলে আখ্যায়িত করতেও কুণ্ঠিত হননি।

সমগ্র বাংলা সাহিত্যের প্রেক্ষাপটে তাই বলা যায়, 'বঙ্কিমচন্দ্রের তুলনা বঙ্কিমচন্দ্র নিজেই।'


ঢাকা, শনিবার, এপ্রিল ৮, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৬৪৯ বার পড়া হয়েছে