সর্বশেষ
শুক্রবার ৭ই বৈশাখ ১৪২৫ | ২০ এপ্রিল ২০১৮

বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনী: 'কারাগারের রোজনামচা'

মঙ্গলবার, এপ্রিল ১১, ২০১৭

1271451589_1491891511.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত আত্মজীবনী'র দ্বিতীয় গ্রন্থ 'কারাগারের রোজনামচা'। গ্রন্থটি বাংলা একাডেমি থেকে প্রকাশ করা হয়।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের মানুষের স্বাধীনতা অর্জনের জন্য সংগ্রাম করেছেন। বাংলার মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য নিজের জীবনের সব আরাম-আয়েশ ত্যাগ করে দিন-রাত অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। তিনি জীবনের অধিকাংশ সময় কারাগারে বন্দি জীবন যাপন করেন।

১৯৬৬ সালে ৬ দফা দেবার পর বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা গ্রেফতার হন। ১৯৬৬ সাল থেকে ১৯৬৯ সাল পর্যন্ত বন্দি থাকেন। সেই সময়ে কারাগারে প্রতিদিনের ডায়েরি লেখা শুরু করেন। ১৯৬৮ সাল পর্যন্ত লেখাগুলি এই বইয়ের প্রকাশ করা হয়।

গ্রন্থটির ভূমিকা লিখেছেন বঙ্গবন্ধুর কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গ্রন্থটির ভূমিকা থেকে কিছু কথা-

'বইটার নাম আমার ছোটবোন রেহানা রেখেছে 'কারাগারের রোজনামচা'। এতটা বছর বুকে আগলে রেখেছি যে অমূল্য সম্পদ আজ তা তুলে দিলাম বাংলার জনগণের হাতে।

আমার মায়ের প্রেরণা ও অনুরোধে আব্বা লিখতে শুরু করেন। যতবার জেলে গেছে আমার মা খাতা কিনে জেলে দিতেন, আব্বা যখন মুক্তি পেতেন তখন খাতাগুলি সংগ্রহ করে নিজে সযত্নে রেখে দিতেন। তার এই দূরদর্শী চিন্তা যদি না থাকত তাহলে এই মূল্যবান লেখা আমরা জাতির কাছে তুলে দিতে পারতাম না।

ভাষা আন্দোলন থেকে ধাপে ধাপে স্বাধীনতা অর্জনের সোপান গুলি যে কত বন্ধুর পথ অতিক্রম করে এগুতে হয়েছে তার কিছুটা কারাগারের রোজনামচা বই থেকে পাওয়া যাবে।

বাংলার মানুষ যে স্বাধীন হবে এ আত্মবিশ্বাস বারবার তার লেখায় ফুটে উঠেছে। এত আত্ম প্রত্যয় নিয়ে পৃথিবীর আর কোনো নেতা ভবিষ্যদবাণী করতে পেরেছেন কিনা আমি জানি না।'

ঢাকা, মঙ্গলবার, এপ্রিল ১১, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ২০৪৭ বার পড়া হয়েছে