সর্বশেষ
রবিবার ১০ই আষাঢ় ১৪২৫ | ২৪ জুন ২০১৮

নিজের সঙ্গী সম্পর্কে যেসব কথা কখনো বলবেন না

শনিবার, মে ৬, ২০১৭

371323810_1494052995.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
সম্পর্কের মধ্যে সব থেকে ভালোবাসার এবং মধুর সম্পর্ক হলো বিয়ে। বিয়ের মধ্যে দিয়ে একজন পুরুষ এবং একজন নারী সব থেকে বেশি কাছে আসে। এর ফলে তাদের বিভিন্ন রকমের গোপনীয় বিষয় একে অন্যের জানা হয়ে যায়। তাই স্বামী-স্ত্রী উভয়ের তাদের দোষগুলো নিয়ে অন্যের সঙ্গে কখনো আলোচনা করা ঠিক নয়। আর এতে করে আপনাদের মাঝে দুরত্ব সৃষ্টি হবে এবং সম্পর্কটা দিন দিন খারাপের দিকে এগিয়ে যাবে।

তাই এসব বিষয় নিয়ে অন্যের সামনে আলোচনা না করে বরং তাকে বুঝিয়ে বলুন। নিজের সঙ্গী সম্পর্কে অন্যের নিকট কটুকথা বললে শুধু সে নয়, আপনি নিজেও ছোটো হচ্ছেন। তাই নিজের জীবন সঙ্গী সম্পর্কে সবার সামনে কিছু বিষয় আলোচনা থেকে নিজেকে বিরত রাখুন।

আপনার রান্নার সাথে তো ওর রান্নার তুলনা হয় না :
কোথাও গেলেন, হতে পারে আত্মীয় বা কলিগের বাসায়। সেই ভদ্রমহিলা হয়তো অনেক ভালো রান্না করেন আর তা আপনার ভালো লেগেছে। কিন্তু তাই বলে তার প্রশংসা করার জন্যে নিজের স্ত্রীর রান্নার সাথে তুলনা দিতে যাবেন না। আপনার স্ত্রীকে খাটো করে হয়তো আপনি অন্যের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হচ্ছেন, কিন্তু আপনার জন্যে সব সময় ভালোবেসে খাবার তৈরি করার মানুষটি কি এতে কষ্ট পান না?

যার প্রশংসা করছেন, তার প্রশংসাই করুন।স্ত্রীর সাথে তুলনা দিয়ে তাকে আপনি কষ্টই দেন না বরং নিজেও নিজের অজান্তেই সামনের মানুষটির সামনে অনেকখানিই ছোট হয়ে যান।

আমার স্ত্রী যদি আপনার মতো হত :
অন্য কোন নারীর সামনে এ কথাটা বলছেন আপনি। এর ফলে প্রথমত আপনার স্ত্রী যে কী ভীষণ কষ্ট পান, তা কি আপনই জানেন? আর যাকে বলছেন, তিনিও আপনাকে একজন হীনমন্যতায় ভোগা অসুখী ব্যক্তি ভেবে করুণা ছাড়া আর কিছুই করবেন না।

আগে পারতো এখন পারে না :
আপনার স্ত্রী হয়তো আগে গান গাইতেন, লেখালিখি বা নাচ করতেন। বিয়ের পর সাংসারিক ঝামেলায় হয়তো তার সে চর্চা নেই। কিন্তু তাই বলে সবার সামনে তার প্রতিভাকে ব্যর্থতায় ঢেকে দেবেন না। কেননা তিনি যা প্রতিভার অধিকারী তার চর্চা করলে আবারো পারবেন। তাই তার প্রতিভার সম্মান দিন।

আমার স্ত্রী তো আপনার স্ত্রীর মত সুন্দরী না :
এটির মত নোংরা কথা জগতে দ্বিতীয়টি নেই। আপনার স্ত্রীর সামনেই যদি অন্য কোন নারীকে এ কথা বলার অভ্যাস থাকে। তবে এটি তো আপনার স্ত্রীকে কষ্ট দেয়ই আর সবার সামনে আপনাকে কিছুটা চারিত্রিক ত্রুটিসম্পন্ন হিসেবেও প্রমাণ করে।

ওকে সব পোশাকে মানায় না :
আপনার স্ত্রী অথবা স্বামী হয়তো অতিরিক্ত মোটা বা শুকনো। তাই বলে সবার সামনে তার ত্রুটি নিয়ে আলোচনা করা উচিত নয়। আপনার সঙ্গীকে কোন বিশেষ পোশাকে না মানালে তাকে সেটি ঘরেই বলুন। ব্যক্তিগত কথা সবার সামনে প্রচারের আলাদা কোনো মহিমা নেই।

ওর চেয়ে ভালো কাউকে বিয়ে করতে পারতাম :
'পারতেন তো করেন নি কেন? শুধু আপনার পাশের মানুষটি নয়। এমন কথায় হাসবে অনেকেই। এতে আপনার নিজের অসম্মান ছাড়া আপনার সঙ্গীর অসম্মান নেই। এসব কথা বলে যতটা না আপনার সঙ্গীকে কষ্ট দিচ্ছেন তার চেয়ে সবার সামনে হাসির পাত্রেই পরিণত হচ্ছেন আপনি।

ও ভীষণ ঝগড়াটে :
মান অভিমান হোক বা মনোমালিন্য, দাম্পত্যে সবারই এমনটা থাকে। একটু আধটু ঝগড়া সম্পর্ককে মজবুত করতে ভূমিকা রাখে। কিন্তু এটি আপনার ও আপনার স্ত্রীর একান্ত ব্যক্তিগত ব্যাপার। এটা সবার সামনে বলে স্ত্রীর ওপর দায় চাপাতে চান অনেকেই। যা আপনার সুন্দর মানসিকতার পরিচয় দেয় না।

ও তো অনেক খরচ করে, মিথ্যা বলে :
দয়া করে বাইরের মানুষকে নালিশ করা বন্ধ করুন। আপনার স্ত্রীকে ওরা পরিবর্তন করতে পারবে না। পারলে আপনিই পারবেন। তাই খরচ কমাতে বাজেট করুন। মিথ্যা কমাতে আপনার উপর আস্থা তৈরির চেষ্টা করুন।

স্বামী স্ত্রীর সম্পর্ক একান্তই ব্যক্তিগত। তাই নিজ স্ত্রীর সম্পর্কে সবার সামনে এমন কোন কথা বলবেন না, যা তাকে হেয় করে। তিনি হেয় হলে কিন্তু আপনারও ইমেজ কমে, এতে বাড়ে না।





ঢাকা, শনিবার, মে ৬, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ৩৩৪৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন