bdlive24

ভ্যাটের কারণে মূল্যস্ফীতি বাড়বে: মহিউদ্দিন

শুক্রবার জুন ০২, ২০১৭, ১২:২৯ পিএম.


ভ্যাটের কারণে মূল্যস্ফীতি বাড়বে: মহিউদ্দিন

বিডিলাইভ রিপোর্ট: প্রস্তাবিত বাজেটকে বিশালাকার বাজেট উল্লেখ করে ব্যবসায়ী শিল্পপতিদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেছেন, ১৫ শতাংশ ভ্যাটের কারণে মূল্যস্ফীতি বাড়বে। এসএমই খাত ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এ বাজেট বাস্তবায়নই এখন সরকারের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ।

তিনি বলেন, বাজেট বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে দক্ষতা, স্বচ্ছতা, জবাবদিহি এবং তদারকির মান নিশ্চিত করতে হবে। অন্যথায় এই বিশাল বাজেট বাস্তবায়ন একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দেখা দেবে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের বাজেট ঘোষণার পরপরই এক তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় এফবিসিসিআই সভাপতি এসব কথা বলেন। রাজধানীর মতিঝিলে ফেডারেশন ভবনে এ ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় সংগঠনের প্রথম সহসভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম ও সহসভাপতি মুনতাকিম আশরাফসহ পরিচালকরা উপস্থিত ছিলেন।

এফবিসিসিআই মনে করে, বাজেটে কতিপয় পণ্যের ভ্যাট অব্যাহতির সুবিধা বৃদ্ধির পাশাপাশি সম্পূরক শুল্ক অব্যাহত রাখা হয়েছে যা দেশীয় শিল্পকে সুরক্ষা দেবে। প্রস্তাবিত বাজেটে টার্নওভার করের সীমা এক কোটি ৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত ৪ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে।

বর্তমান প্রেক্ষাপটে টার্নওভার ট্যাক্স ৩ শতাংশ অপরিবর্তিত রেখে টার্নওভার করের সীমা ৫ কোটি টাকার পুনর্বিবেচনার প্রস্তাব করেছে এফবিসিসিআই। এ ছাড়া ব্যক্তির অর্থনৈতিক কার্যক্রমের বার্ষিক টার্নওভার সীমা ৩৬ লাখ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

বর্তমানে যা ৩০ লাখ টাকা আছে। ক্ষুদ্র, গ্রামীণ উদ্যোগ, কুটির শিল্পসহ প্রান্তিক খাতের বিকাশে এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী বা দোকানদারদের হিসাব সংরক্ষণের সক্ষমতার সীমাবদ্ধতা বিবেচনা করে অব্যাহতি এ সীমা ৫০ লাখ টাকায় উন্নীত করার জন্য পুনরায় প্রস্তাব দিয়েছে এফবিসিসিআই।

আয়কর: বাজেটে করমুক্ত আয়ের সীমা বৃদ্ধির প্রস্তাব থাকা সত্ত্বেও এ সীমা দুই লাখ ৫০ হাজার টাকায় অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে।

মূল্যস্ফীতি, জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি, জনগণের ক্রয়ক্ষমতা বৃদ্ধি বিবেচনায় নিয়ে এ সীমা তিন লাখ ২৫ হাজার টাকায় উন্নীত করার জন্য আবারও প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

এ ছাড়া প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে কর্পোরেট করহার হ্রাস, সারচার্জের সীমা সোয়া দুই কোটি থেকে বাড়িয়ে ৫ কোটি টাকা নির্ধারণ, বিনিয়োগ আকর্ষণে অগ্রিম আয়কর প্রত্যাহার, রফতানির উৎসে কর দশমিক ৭০ শতাংশ থেকে কমিয়ে দশমিক ৫০ নির্ধারণের প্রস্তাব দিয়েছে এফবিসিসিআই।

এফবিসিসিআই বলছে, ব্যাংকে অর্থ জমা রাখার ক্ষেত্রে আবগারি শুল্ক বৃদ্ধি করা হয়েছে। এতে আমানতকারী আমানত রাখতে নিরুৎসাহিত হবেন। এ ছাড়া অর্থ ব্যাংক চ্যানেলে না গিয়ে ইনফরমাল চ্যানেলে চলে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে যা অর্থনীতির জন্য শুভ নয়।

সুতরাং আবগারি কর বৃদ্ধি না করে পূর্ববর্তী অবস্থায় রাখার জন্য প্রস্তাব দিয়েছে এফবিসিসিআই। একই সঙ্গে চলতি অর্থবছরের মতো আগামী বাজেটেও নারী উদ্যোক্তাদের জন্য অর্থ বরাদ্দের জন্য অনুরোধ জানিয়েছে।


ঢাকা, জুন ০২(বিডিলাইভ২৪)// এ এম
 
        print



মোবাইল থেকে অ্যাপস ডাউনলোড করুন
android iphone windows




bdlive24.com © 2010-2014
Powered By: NRB Investment Ltd.