সর্বশেষ
রবিবার ৯ই বৈশাখ ১৪২৫ | ২২ এপ্রিল ২০১৮

নিজেকে ভাড়াটে দাবি করে মওদুদের মামলা

বুধবার, জুন ৭, ২০১৭

1862583818_1496847045.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ নিজকে গুলশানের বাড়ির ভাড়াটে দাবি করে আজ বুধবার ঢাকার প্রথম যুগ্ম জেলা জজ আদালতে একটি মামলা করেছেন। রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান চলাকালে তিনি এই ধরণের একটি মামলা দায়ের করলেন। কিন্ত বিচারক এখন পর্যন্ত কোনো আদেশ দেননি।

মওদুদ আহমদ মামলার আরজিতে বলেছেন, ১৯৮১ সালে তিনি ভাড়াটে হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হন। তখন থেকেই বাড়িটি তার দখলে আছে। বাড়িটি ভাড়া নেওয়ার পর প্রায় দুই কোটি টাকার বেশি অর্থের উন্নয়ন কাজ করেছেন তিনি।

রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক), গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়, ঢাকা জেলা প্রশাসন যাতে বাড়িটি দখল করতে না পারে, এ জন্য ওই বাড়ির ভাড়াটে হিসেবে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আবেদন করেন তিনি।

মামলার আরজিতে বলা হয়, পাকিস্তানি নাগরিক মো. এহসান তৎকালীন ডিআইটি বর্তমান রাজউকে অ্যালটমেন্ট বা বরাদ্দ চেয়ে আবেদন করেন। ডিআইটি মো. এহসানের স্ত্রী জার্মান নাগরিক ইনজি স্লাজের নামে বাড়িটি বরাদ্দ দেন। ১৯৮১ সালে গুলশানের ওই বাড়ির মালিক ইনজি স্লাজ প্রয়াত প্রধান বিচারপতি মাইনুর রেজা চৌধুরীকে পাওয়ার অব অ্যাটর্নি (আমমোক্তারনামা) করে দেন। পাওয়ার অব অ্যাটর্নির ক্ষমতা ১৯৮৪ পর্যন্ত বহাল ছিল।

মামলায় এহসান-ইনজি দম্পতির ছেলে করিম ফারনাজ সোলাইমান, রাজউক, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ঢাকা জেলা প্রশাসককে বিবাদী করা হয়েছে। মওদুদ আহমেদ নিজেই এদিন ভাড়াটে হিসেবে মামলাটি করেন।

বিএনপি নেতা মওদুদ আহমদ গুলশানের যে বাড়িতে বাস করে আসছেন, সেই বাড়ির বিষয়ে সর্বোচ্চ আদালতের দেওয়া সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা চেয়ে করা আবেদন (রিভিউ) গত রোববার পর্যবেক্ষণসহ খারিজ করে দেন আপিল বিভাগ।

আদেশের পর অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম সাংবাদিকদের বলেন, বাড়ি অবশ্যই ছাড়তে হবে। বাড়িটি বর্তমানে নিয়ে নেওয়া সরকারের দায়িত্ব। বাড়িটি নিয়ন্ত্রণে নিতে ঘটনাস্থলে যান রাজউকের কর্মকর্তারা।

ঢাকা, বুধবার, জুন ৭, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এস এইচ এই লেখাটি বার পড়া হয়েছে