সর্বশেষ
সোমবার ১০ই বৈশাখ ১৪২৫ | ২৩ এপ্রিল ২০১৮

কাতার সংকট ও এক ব্যবসায়ীর সুদূরপ্রসারি পরিকল্পনা

বুধবার, জুন ১৪, ২০১৭

366003099_1497431842.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
বিশ্বের ধনী রাষ্ট্র গুলোর মধ্যে অন্যতম মাত্র ১১ হাজার বর্গমাইলের ছোট্ট দেশ কাতার। প্রাকৃতিক গ্যাস তরলিকীকরণ (এলএনজি), এবং তেল উৎপাদন এবং রপ্তানিতে শীর্ষ দেশের একটা।

বিশ্বের বহু দেশের গুরুত্বপূর্ণ চাহিদ পূরণ করে তারা। তবে ছোট্ট এ দেশটি খাদ্য সামগ্রী আমদানির উপর সম্পূর্ণ নির্ভরশীল। আর তাদের প্রায় সম্পূর্ণ খাদ্য আমদানি হতো সৌদি আরব, বাহরাইন, এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের বর্ডার দিয়ে।

তবে এসব দেশ কাতারের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করায় হঠাৎ করে মার্কেটগুলো খাদ্য সংকট দেখা দেয়। আর কাতারে সবচেয়ে বেশি চাহিদা সম্পন্ন খাবার হলো দুগ্ধজাত পণ্য। আর এগুলো দূর থেকে আনতে অনেক খরচ পড়বে।

এই বিষয়টি চিন্তা করে সম্প্রতি বিমানে করে ৪০০০ হাজার গাভী কাতারে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সেদেশের এক ব্যবসায়ী। তিনি এরই মধ্যে দুগ্ধ খামার নির্মাণের সব কার্যক্রম প্রায় শেষ করে ফেলেছেন।

পাওয়ার ইন্টারন্যাশনাল হোল্ডিং এর চেয়ারম্যান মৌতাজ আল-খায়াত জানিয়েছেন, অস্ট্রেলিয়া এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে এই গরু কেনা হয়েছে। পরিকল্পনা ছিল জাহাজে করে তাদের কাতারে আনা, কিন্তু অবরোধ সংকটের কারণে বিমান ব্যবহারের পরিকল্পনা করা হয়েছে।

বিমানের ৬০টি ফ্লাইটে করে কাতারে আনা হবে 'হোলস্টাইন' জাতের এসব দুধেল গরু। পণ্য বাইরে থেকে আনার প্রবণতা কমিয়ে দেশের ভিতরে কিভাবে উৎপাদন করা যায় তা ভাবতে শুরু করে দিয়েছেন কাতারের সাধারণ জনগণ। তারই উৎকৃষ্ট উদাহরণ মৌতাজ আল খায়াতের এই বিশাল কর্মযজ্ঞ।

ঢাকা, বুধবার, জুন ১৪, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি বার পড়া হয়েছে