সর্বশেষ
সোমবার ৪ঠা আষাঢ় ১৪২৫ | ১৮ জুন ২০১৮

ঢাবিতে ৬৬৪ কোটি টাকার বাজেট

শনিবার, জুন ১৭, ২০১৭

818042353_1497690442.jpg
ঢাবি প্রতিনিধি :
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ৬৬৪ কোটি ৩৭ লাখ টাকার বাজেট পাশ করা হয়েছে।

শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে ‘বিশ্ববিদ্যালয় বার্ষিক সিনেট অধিবেশন ২০১৭’-এ কোষাধ্যক্ষ ড. কামাল উদ্দিন এ প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপন করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেটে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৬৬৪ কোটি ৩৭ লাখ টাকা। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে বরাদ্দ ছিল ৬৬৪ কোটি ১১ লাখ টাকা। পরে সংশোধিত আকারে তা বেড়ে দাঁড়ায় ৬৬৭ কোটি ১৯ লাখ টাকা। সে হিসাবে এ বছর বাজেটের আকার তুলনামূলক কমেছে। ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বাজেটের পরিমাণ ছিল প্রায় ৫০০ কোটি টাকা। ২০১৪-১৫ অর্থবছর তা ছিল ৪২৫ কোটি ৫০ লাখ টাকা এবং ২০১৩-১৪ অর্থবছরে ছিল ৩১৪ কোটি ৫৩ লাখ টাকা।

এবার মোট বাজেটের ৬২ দশমিক ৬৩ শতাংশ বরাদ্দ রাখা হয়েছে শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা বাবদ। টাকার অঙ্কে এর পরিমান ৪১৬ কোটি ৬ লাখ টাকা। এর মধ্যে শিক্ষকদের বেতন ২০.৪০ শতাংশ, কর্মকর্তাদের ৬.৮৩ শতাংশ, কর্মচারীদের ৯.০৭ শতাংশ। এছাড়া বাড়িভাড়া, চিকিৎসা, যাতায়াত, শান্তিবিনোদন ও বই ভাতা ইত্যাদি বাবদ বরাদ্দ ব্যয় ধরা হয়েছে ২৬ দশমিক ৩৩ শতাংশ। পেনশন খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ১০৬ কোটি টাকা। যা মোট বাজেটের ১৫ দশমিক ৯৬ শতাংশ, সাধারন আনুষাঙ্গিক খাতে রাখা হয়েছে ৪৮ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। যা মোট বাজেটের ৭ দশমিক ২৯ শতাংশ।

বরাবরের মতো এবারও অবহেলিত বাজেট বরাদ্দ রাখা হয়েছে শিক্ষা ও গবেষণা খাতে। লাইব্রেরি, বই পুস্তক ক্রয়, জার্নাল, কেমিক্যাল ও ইকুইপমেন্টস ক্রয়, শিক্ষার্থীদের শিক্ষা সফর, সেমিনার, পরীক্ষা, গবেষণা, শিক্ষক প্রশিক্ষণ, ইন্টারনেট, শিক্ষা বৃত্তি, বিভাগীয় খেলাধুলা, ছাত্র কল্যাণ, পরিবহন ইত্যাদি খাতে মোট বরাদ্দ রাখা হয়েছে মাত্র ৭০ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। যা বাজেটের ১০ দশমিক ৬৬ শতাংশ। এর মধ্যে আবার গবেষণা ব্যয় ধরা হয়েছে মাত্র ১৪ কোটি যা মোট বাজেটের দুই শতাংশ। মেরামত সংরক্ষণ ও রক্ষণাবেক্ষণ খাতে বরাদ্দ ১০ কোটি ৫০ লাখ টাকা যা বাজেটের ১ দশমিক ৫৮ শতাংশ। মূলধন মঞ্জুরি বাবদ ১৫ কোটি ৩০ লাখ টাকা। যা বাজেটের ২ দশমিক ৩০ শতাংশ। এর মধ্যে দুই কোটি ৭৯ লাখ টাকা অর্থাৎ, শূন্য দশমিক ৪২ শতাংশ (শূন্য পদের বরাদ্দ) ব্যয় বাদ যাবে।

এবারের বাজেটে আয়ের উৎস হিসেবে দেখানো হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) অনুদান ও নিজস্ব আয়। এর মধ্যে ইউজিসি দেবে ৬০৮ কোটি ১০ লাখ টাকা। বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব তহবিল থেকে যোগান দেয়া হবে ৪২ কোটি ৫৫ লাখ টাকা। ইউজিসির নিয়মিত বাজেটের বাইরে বিশেষ বরাদ্দ (গবেষণা মঞ্জুরি ও বিশেষ অনুদান) হিসেবে ধরা হয়েছে ২ কোটি টাকা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের সভাপতিত্বে অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. নাসরীন আহমাদ, কোষাধ্যক্ষ ড. কামাল উদ্দিন, রেজিস্ট্রার ড. এনামুজ্জামানসহ সিনেট সদসগণ।

ঢাকা, শনিবার, জুন ১৭, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // আর এ এই লেখাটি বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন