সর্বশেষ
শনিবার ১২ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ | ২৬ মে ২০১৮

আত্মহত্যা করতে উদ্যত নারী যেভাবে বাঁচলো

রবিবার, জুন ১৮, ২০১৭

661041972_1497772393.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :
সাত তলা ভবনের একেবারে জানালার কার্নিশে পা ঝুলিয়ে বসে ছিলেন এক নারী। সেখান থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার হুমকি দিচ্ছিলেন তিনি। কার্নিশ থেকে নিরাপদে চলে আসার জন্য তাকে তার মা, স্বামী ও ছোট্ট মেয়ে বারবার আকুতি জানাচ্ছিলেন। এসব আকুতি গ্রাহ্য করছিলেন না ওই নারী। বারবার ঝাঁপ দিতে উদ্যত হচ্ছিলেন তিনি।

সবার মধ্যে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা। ঠিক এমন পরিস্থিতিতে ফায়ার সার্ভিসের এক কর্মকর্তা কৌশলে ওই নারীকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করেন। গতকাল শনিবার বেলা সাড়ে তিনটার দিকে উত্তরা ১০ নম্বর সেক্টরের একটি বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

উত্তরা ফায়ার স্টেশনের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা শফিকুল ইসলামবলেন, সাত তলা ভবনের চার তলায় স্বামী ও এক কন্যাসন্তান নিয়ে থাকতেন ওই নারী। স্বামীর সঙ্গে ঝগড়ার জের ধরে তিনি ভবনের ছাদে উঠে একটি জানালার কার্নিশে বসে পড়েন। সেখান থেকে লাফ দিয়ে আত্মহত্যার হুমকি দেন।

ফায়ার সার্ভিসেরকর্মকর্তার ভাষ্য, ওই নারীর মা তাকে নেমে আসতে বলেন। পারিবারিক সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেন। কিন্তু তিনি নেমে আসতে অস্বীকৃতি জানান। মেয়ে-স্বামীর অনুরোধও শুনছিলেন না।

একপর্যায়ে তিনি (শফিকুল) ফায়ার সার্ভিসের পোশাক বদলে সাধারণ পোশাকে ভবনের ছাদে ওঠেন। মা ও স্বজনেরা নানান কথায় ওই নারীকে ব্যস্ত রাখেন। কৌশলে তিনি  ছাদে গিয়ে ওই নারীকে ধরে ফেলেন। তাকে কার্নিশ থেকে নামিয়ে আনেন এভাবে সেদিনের ঘটনা জানালেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা শফিকুল।

উত্তরা পশ্চিম থানার উপপরিদর্শক আব্দুল্লাহ ইবনে সাইফ বলেন, দাম্পত্যকলহের জের ধরে ওই নারী আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন বলে জানা গেছে। ওই নারী ভবনের যেখানে অবস্থান নিয়েছিলেন, সেখান থেকে ঝাঁপ দিলে যেকোনো অঘটন ঘটতে পারত।

পুলিশ জানায়, উদ্ধারের পর ওই নারীকে উত্তরা পশ্চিম থানায় নিয়ে আসা হয়। পরে পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেয়া হয়।

নারীর স্বামীর ভাষ্য, তার স্ত্রীর কিছু সমস্যা আছে। তাকে নিরাময় কেন্দ্রে পাঠানো হবে।

ঢাকা, রবিবার, জুন ১৮, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি বার পড়া হয়েছে