সর্বশেষ
বুধবার ৮ই ফাল্গুন ১৪২৪ | ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

'যৌথ প্রযোজনায় কাস্ট করলে আন্দোলন বন্ধ'

2017-06-19 16:57:47

622077336_1497869867.jpg
বিনোদন রিপোর্ট :
এক পক্ষ বলছে যৌথ প্রযোজনার সিনেমা চালানো হলে হল বন্ধ করে দেয়া হবে। আবার আরেক পক্ষ বলছে যৌথ প্রযোজনার সিনেমা না চালালে হল বন্ধ হয়ে যাবে।

গত ক'দিন ধরে 'নবাব ও বস ২' যৌথ প্রযোজনার নীতিমালা ভঙ্গ করার যুক্তি দেখিয়ে দুটি ছবি মুক্তিতে আন্দোলন নামে বাঁধা সৃষ্টি করছে। এই দুটি সিনেমা মুক্তি না পেলে সিনেমা হলে প্রচুর বিনিয়োগকৃত অর্থ আটকে যাবে এবং সিনেমা হলের মালিকগন সিনেমা হল বন্ধের উদ্যেগ নিবেন বলে জানায় যায়।

এই পরিস্থিতিতে চলচ্চিত্র বুকিং এজেন্ট সমিতির উদ্যেগে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চিত্রনায়ক শাকিব খান, আরেফিন শুভ, অমিত হাসান, চিত্রপরিচালক কাজী হায়াৎ, বিপাশা কবির, মিষ্টি জান্নাত, জলি, নওশেদ খান সহ আরো অনেকে…।

সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেতা শাকিব বলেন, 'নবাব' বাঙ্গালী জাতির গর্বের একটি সিনেমা। 'নবাব' হচ্ছে এমন একটি সিনেমা যে সিনেমায় বাংলাদেশ পুলিশ প্রশাসনকে আন্তর্জাতিকভাবে, খুব সম্মানের সাথে উপস্থাপন করা হয়েছে। এই সিনেমা আন্তর্জাতিকভাবে চলবে এবং আন্তর্জাতিকভাবে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হবে। প্রিভিউ কমিটি প্রথমবার 'নবাব' ছবিটি দেখার পর বলেছিল ভারতীয় মাঠিতে বাংলাদেশের জয়।

'কাফনের কাপড় পরে আপনারা আন্দোলন করলেন যৌথ প্রযোজনার নামে আর আপনারাই যৌথ প্রযোজনার ছবিতে কাজ করছেন?' এমন প্রশ্নের জবাবে শাকিব বলেন, মূর্খের মত কথা না বলে সেই আন্দোলনের রেকর্ড টেনে দেখেন সেদিন ব্যনারে কি লেখা ছিল… ব্যনারে লেখা ছিল 'বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায় হিন্দী উর্দু ছবি চলবে না' সেদিন যৌথ প্রযোজনার ছবির বিরুদ্ধে কোন আন্দোলন করা হইনি। এসব ভন্ডামির সাথে আমরা কখনো ছিলাম না, আমরা কখনোই থাকব না। যখন যে আন্দোলন করেছি চলচ্চিত্রের স্বার্থেই আন্দোলন করেছি।

সাবানা ম্যাডাম এর প্রোডাকশনে যৌথ প্রযোজনার অনেক ছবি হয়েছে। মিঠুন চক্রবর্তী যখন 'অবিচার' যৌথ প্রযোজনা সিনেমা করেছেন তখন আমাদের দেশের শুধুমাত্র ৩ জন শিল্পী ছিলেন রোজিনা, নতুন, এটিএম সামসুজ্জামান। তখন সেটা কি যৌথ প্রতারণা ছিল না?

আজকে যারা যৌথ প্রযোজনার বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে তারা এক সময় যৌথ প্রযোজনার ছবিতে কাজ করেছেন। তাদের একজনকে আবার যৌথ প্রযোজনার ছবিতে কাস্ট করেন দেখবেন তাদের মুখ বন্ধ হয়ে যাবে, কিন্তু যৌথ প্রযোজনা কখনো বন্ধ হবে না। সব আন্দোলন ব্যক্তি স্বার্থে! শিল্পের স্বার্থে কিংবা দেশের স্বার্থে না।

শাকিব আরো বলেন, যৌথ প্রযোজনার ছবিতো আমি একটা করেছি 'শিকারী' বাংলাদেশের সবাই জানেন! মাননীয় মন্ত্রী মহোদয় থেকে শুরু করে… প্রিন্ট মিডিয়া, ইলেন্ট্রনিক্স মিডিয়া আপনারা সবাই আমাকে অনেক ধন্যবাদ দিয়েছেন 'শাকিব খান আপনি আমাদের মান রেখেছেন' আপনারা অনেক ধন্যবাদ দিয়েছেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্নধর আবদুল আজিজকে। যে এতো সুন্দর একটি চলচ্চিত্র আমাদের উপহার দিয়েছেন। শুধু বাংলাদেশ নয় ভারতের পশ্চিম বঙ্গ, আসাম স্টেট, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, মালয়েশিয়া সহ আরো অনেক দেশে শিকারী প্রদর্শিত হয়।

ফেরদৌস বলেন, সম্ভবত এই পর্যন্ত যৌথ প্রযোজনার সব চেয়ে বেশি ছবিতে আমি অভিনয় করেছি এবং ভারতে বাংলাদেশি অভিনেতা হিসেবে সব চেয়ে বেশি চলচ্চিত্রে আমি অভিনয় করেছি। যৌথ প্রযোজনার একটি ছবির জন্য যদি সরকার অনুমতি দেয় তাহলে আমরা বলার কে যে এইটা যৌথ প্রযোজনার ছবি না! আজকে যদি আজিজ সাহেব যৌথ প্রযোজনার ছবি বানানো বন্ধ করে দেয় তাহলে যে কয়েকটা ভালো ছবি হচ্ছে সে গুলোও হবে। আমি সব সময় যৌথ প্রযোজনার পক্ষে ছিলাম আছি থাকবো।

সব শেষে জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধর আবদুল আজিজ বলেন, মিশা সওদাগর যৌথ প্রযোজনার ছবির বিরুদ্ধে আন্দোলন করছেন অথচ তিনি নিজেই প্রতিদিন আবদুল্লাহ জহির বাবুকে ফোন করে বলে তাকে যৌথ প্রযোজনার ছবিতে নেয়ার জন্য এবং এসকে মুভিজ এর নির্বাহী প্রযোজক বিপ্লবকে ফোন করে রিকুয়েস্ট করে তাকে যৌথ প্রযোজনার ছবিতে নেয়ার জন্য।

ভালো সিনেমা না হলে সিনেমা হলে দর্শক আসবে না। বিগ বাজেটে সিনেমা না হলে সিনেমা শিল্প বাঁচবে না। এই ঈদে 'নবাব ও বস ২' দুইটা ছবি মুক্তি পাবে ইনশাআল্লাহ্‌। আমি ধারকর্য করে সিনেমা বানাই নাই, নিজের টাকার খরচ করে সিনেমা বানাইছি। আমি একটা ছবি মুক্তি দিব না, দিলে ২টাই দিব না দিলে একটাও দিব না। যদি মুক্তি না পায় তাহলে আমি আমার ১২টা সিনেমা হল বন্ধ করে দিব, সিনেমা বানানো বন্ধ করে দিব।

এর আগে গতকাল দুপুরে যৌথ প্রযোজনার নামে যৌথ প্রতারণার অভিযোগ এনে চলচ্চিত্রের ১৪টি সংগঠন চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। এ সময় তারা এই প্রতারণা বন্ধের জন্য তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুকে জানায়। তথ্যমন্ত্রী তাদের চলমান সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন।

একইদিন তথ্য মন্ত্রণালয়ে তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে যৌথ প্রযোজনার সিনেমা নিয়ে এক বৈঠকে অংশ নেন শাকিব খান ও নুসরাত ফারিয়া। সেখানে ছবি দুটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া ও কলাকুশলীরাসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকা, 2017-06-19 16:57:47 (বিডিলাইভ২৪) // জেড ইউ এই লেখাটি 0 বার পড়া হয়েছে