সর্বশেষ
রবিবার ১২ই ফাল্গুন ১৪২৪ | ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ছুটি শেষে ব্যাট-বলের দুনিয়ায় ক্রিকেটাররা

মঙ্গলবার ১১ই জুলাই ২০১৭

897107263_1499711694.jpg
শুভ শুভ্র :
জুলাইয়ে পাকিস্তান আসার কথা ছিল। তারা না আসায় ২৫ দিন ছুটি পায় বাংলাদেশ দল। এর ভেতর ঈদ পড়ে যায়। অখণ্ড সেই অবসর পার করে অস্ট্রেলিয়া সিরিজের জন্য ক্যাম্পে ফিরেছে ক্রিকেটাররা। ফিটনেস ঠিক করার কাজ করছেন তারা।

‘ক্রিকেটারদের ফিটনেস কেমন আছে তা এই ক্যাম্পের মাধ্যমে বোঝা যাবে। ফিটনেস ট্রেনিংয়ে ব্যাটিং, বোলিং ফিল্ডিংয়ের জন্য যে শারীরিক সক্ষমতা থাকতে হয়; এসকল বিষয় নিয়েই এখানে কাজ হবে।’ ক্যাম্পের প্রথমদিন শেষে বলেন ফিটনেস কোচ মারিও ভিল্লাভারায়ন।

আগস্ট-সেপ্টেম্বরে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুই টেস্টের হোম সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ দল। তার কয়েকদিন পর সাউথ আফ্রিকায় সিরিজ।

প্রস্তুতি ক্যাম্পের প্রথম তিন সপ্তাহ চলবে ফিটনেস বাড়ানোর পর্ব। এরপর ব্যাট-বলের স্কিল ট্রেনিং।

ক্যাম্পের প্রথম দিন সাকিবদের ফিটনেস পরীক্ষার জন্য ব্লিপ টেস্ট নিয়েছেন জাতীয় দলের ট্রেনার মারিও ভিল্লাভারায়ান। স্কিল ক্যাম্পের আগে যোগ দেবেন হেড কোচ চণ্ডিকা হাথুরুসিংহে, ফিল্ডিং ও সহকারী কোচ রিচার্ড হ্যালসল এবং পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ।

ক্যাম্পে ডাক পাওয়া ২৯ ক্রিকেটারের মধ্যে পাঁচ ক্রিকেটার (লিটন, এনামুল, তানবীর, সাইফউদ্দিন, আবুল হাসান) এইচপি দলের হয়ে আছেন অস্ট্রেলিয়া সফরে। তামিম ইকবাল এসেক্সের হয়ে কাউন্টি খেলছেন ইংল্যান্ডে। দেশে থাকা বাকি ২৩ ক্রিকেটারের মধ্যে ছিলেন না পেসার রুবেল হোসেন।

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সময় বার্মিংহামে হোটেলের দরজার সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে তিনি ডান চোখ ও কানের মাঝামাঝি অংশে চোট পেলে দেশে ফিরে অস্ত্রোপচার করান রুবেল। তাকে অন্তত চার সপ্তাহ বিশ্রামে থাকতে বলেছেন চিকিৎসকরা। তিন সপ্তাহ পেরিয়ে গেছে এর মধ্যে।

টানা খেলার মধ্যে থাকায় লম্বা ফিটনেস ট্রেনিং করতে পারেনি বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। সবশেষ ফিটনেস ক্যাম্প হয়েছিল ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে ঘরের মাঠে আফগানিস্তান ও ইংল্যান্ড সিরিজের আগে। প্রায় ১০ মাস পর আবার ফিটনেস নিয়ে কাজ করার সময় সুযোগ মিলেছে ক্রিকেটারদের।

ঢাকা, মঙ্গলবার ১১ই জুলাই ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // ই নি এই লেখাটি 90 বার পড়া হয়েছে