সর্বশেষ
মঙ্গলবার ২রা শ্রাবণ ১৪২৫ | ১৭ জুলাই ২০১৮

এজলাস ভাঙচুর, হাইকোর্টের ক্ষমা ৫ আইনজীবীকে

বৃহস্পতিবার, জুলাই ২০, ২০১৭

1697084587_1500542727.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :
এজলাস কক্ষে ভাঙচুর, বেঞ্চ কর্মকর্তাকে মারধরসহ আদালতের কার্যক্রমে ব্যাঘাত সৃষ্টির ঘটনায় নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করায় ৫ আইনজীবীকে অব্যাহতি দিয়েছেন হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে বেঞ্চ অফিসাররা আর্থিক লেনদেনের সঙ্গে জড়িত কিনা সে বিষয়ে তদন্ত করতে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার কার্যালয়কে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি  মো.নজরল ইসলাম তালুকদার এবং বিচারপতি খিজির আহমেদ চৌধুরীর বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে আইনজীবীদের পক্ষে শুনানি করেন, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল ও বর্তমান সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুনসহ প্রমুখ।

এর আগে গত ১০ জুলাই আদালতের এজলাস কক্ষে ভাংচুর, বেঞ্চ কর্মকর্তাকে মারধর ও আদালতের কার্যক্রমে ব্যাঘাত সৃষ্টির ঘটনায় নিঃশর্ত ক্ষমা চান সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ আইনজীবী।

পাঁচ আইনজীবী হলেন- নূরে ই আলম উজ্জ্বল, লিজেন পাটোয়ারী, সুলতান মাহমুদ, মতিলাল বেপারি ও মোহাম্মদ আলী।

গত ১৯ জুন আদালতের এক আদেশে বলা হয়, ২৪ নম্বর কক্ষে (অ্যানেক্স) কিছু সংখ্যক আইনজীবী চিৎকার শুরু করে আদালতের কার্যক্রমকে বাধাগ্রস্ত করেন। তারা রফিকুল ইসলাম নামের এক বেঞ্চ কর্মকর্তার ওপর চড়াও হন ও মামলার নথিপত্র তছনছ করেন।

আইনজীবী মোহাম্মদ আলীসহ অন্য কিছু আইনজীবী ডায়াসের পাশে দাঁড়িয়ে এসব কর্মকাণ্ডে উৎসাহ দেন। এই অভিযোগে পাঁচ আইনজীবীর বিরুদ্ধে রুল জারি করে ২ জুলাই হাজিরের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, জুলাই ২০, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন