সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ৪ঠা মাঘ ১৪২৪ | ১৮ জানুয়ারি ২০১৮

৭ গুণী শিল্পী পেলেন 'শিল্পকলা পদক ২০১৬'

শনিবার ২২শে জুলাই ২০১৭

1062481776_1500698639.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :
বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে শুরু করা হয়েছে ‘শিল্পকলা পদক’। সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে ২০১৩ সাল থেকে শিল্পকলা পদক প্রদান করা হচ্ছে।

রাষ্ট্রপতি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিগত সময়ে শিল্পকলা পদক প্রদান করেছেন। গত ২০ জুলাই বিকেল ৩টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ৭টি বিষয়ে যথাক্রমে পবিত্র মোহন দে (যন্ত্রসঙ্গীত), মো. গোলাম মোস্তফা খান (নৃত্যকলা), গোলাম মুস্তাফা (ফটোগ্রাফি), কালিদাস কর্মকার (চারুকলা), সিরাজ উদ্দিন খান পাঠান (লোকসংস্কৃতি), সৈয়দ জামিল আহমেদ (নাট্যকলা) ও মিতা হক (কণ্ঠ সঙ্গীত)-এর হাতে পদক তুলে দেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

দেশের শিল্প ও সংস্কৃতির ক্ষেত্রে জাতীয় পর্যায়ে বিশেষ অবদানের জন্য গুণীজন এবং তাদের কর্মকে চিহ্নিত করে সংস্কৃতির পৃষ্ঠপোষকতা ও বিকাশ সাধনের লক্ষ্যে শিল্পকলা পদক প্রদান নীতিমালা অনুযায়ী বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি কর্তৃক ‘শিল্পকলা পদক’ প্রদান করা হয়ে থাকে।
 
নীতিমালা অনুযায়ী ১৬ সদস্যের কমিটি প্রতিবছর পদক প্রদানের ক্ষেত্রে এবং পদকের জন্য গুণীজন নির্বাচন করে থাকেন। শিল্পকলা পদক-এর জন্য নির্বাচিত গুণীজনদের প্রত্যেককে একটি স্বর্ণপদক, ১ লক্ষ টাকা সম্মানী ও একটি সনদপত্র প্রদান করা হয়।
 
পদক প্রদানের জন্য তালিকাভুক্ত ক্ষেত্র ১০টি- কণ্ঠসঙ্গীত, যন্ত্রসঙ্গীত, নৃত্যকলা, নাট্যকলা, চারুকলা, আবৃত্তি, ফটোগ্রাফি, যাত্রাশিল্প, চলচ্চিত্র ও লোকসংস্কৃতি। প্রতিবছর সকল ক্ষেত্রে পদক প্রদান করা হয় না, তবে তালিকাভুক্ত ক্ষেত্র হতে নির্বাচিত ৭টি ক্ষেত্রে প্রতিবছর শিল্পকলা পদক প্রদান করা হয়।

ঢাকা, শনিবার ২২শে জুলাই ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি 6 বার পড়া হয়েছে