bdlive24

'ইস্যু সৃষ্টির জন্য মিথ্যাচার করছেন মওদুদ'

শনিবার জুলাই ২৯, ২০১৭, ০৮:৪৭ পিএম.


'ইস্যু সৃষ্টির জন্য মিথ্যাচার করছেন মওদুদ'

নোয়াখালী প্রতিনিধি: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যরিষ্টার মওদুদ আহমদের মিথ্যা বক্তব্যের প্রতিবাদে নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলা আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগি সংগঠনের উদ্যোগে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার বিকেলে কবিরহাট পৌর মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কবিরহাট পৌর মেয়র জহিরুল হক রায়হান লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন।

এ সময় অভিযোগ করে বলা হয়, রাজনীতি ময়দানে কোনো ইস্যু না পেয়ে নতুন করে ইস্যু সৃষ্টির জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে মিথ্যা অভিযোগ করছেন বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিষ্টার মওদুদ আহমদ।

পৌর মেয়র বলেন, উপজেলা বিএনপির অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের কারণে সংঘর্ষের আশঙ্কায় মওদুদ আহমেদ বসুরহাট পৌরসভা হলে বিএনপির সমাবেশ করেননি। পরে মওদুদ তার বাড়িতে সভা করেন। এর দায়ভার কোনো ভাবেই আওয়ামী লীগের নয়। গত আট বছরে মওদুদ আহমেদ এলাকায় এসেছেন, সভা-সমাবেশ করেছেন। আওয়ামী লীগ তাদের কোনো অনুষ্ঠানে বাধা দেয়নি। তবে তিনি যতবার এলাকায় এসেছেন প্রতিবারই তার উপস্থিতিতেই সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে তার দল।

জহিরুল হক রায়হান বলেন, আওয়ামী লীগ কখনোই বিএনপি ও তাদের শরীক দলের সভা সমাবেশে হস্তক্ষেপ কিংবা বাধাগ্রস্ত করেনি। বরং বিএনপি ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের ৫ শতাধিত নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে ১০০টি মিথ্যা মামলা দায়ের করে এবং ৫ হাজার নেতাকর্মী তাদের হামলার শিকার হয়।

এছাড়াও মওদুদ আইনমন্ত্রী থাকাকালীন সময় কবিরহাট ও কোম্পানীগঞ্জে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের প্রায় ৫ হাজার নেতাকর্মীকে বাড়ী ছাড়া করা হয়েছিল। অসংখ্য নেতাকর্মীর বাড়ীঘর, দোকানপাট, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে ভাংচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করা হয়েছিল। এমনকি গৃহপালিত পশু, পুকুরের মাছ, বাগানের গাছ ও জমির ফসল পর্যন্ত কেটে নেয়া হয়েছিল। অসংখ্য নেতা-কর্মী হামলার কারণে মৃত্যু ও শারীরিক পঙ্গুত্ব বরণ করেছিল। তারপরও তিনি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের বিরুদ্ধে অব্যাহতভাবে মিথ্যাচার করে যাচ্ছেন।

সংবাদ সম্মেলনে পৌর মেয়র আরও অভিযোগ করেন, ব্যরিষ্টার মওদুদ কবিরহাট উপজেলায় বিএনপির নামে টপ টেন এবং কবির হাট পৌরসভায় সুপার সিক্স নামে একটি দল ঘোষণা করেছেন। এতে বিএনপির ভেতরেই অসন্তোষ বিরাজ করছে।

মেয়র বলেন, মওদুদ আহমদ যখন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের গণতন্ত্রের শিক্ষা দেয় তখন সেটা হাস্যরসে পরিণত হয়। মওদুদ দেশের সর্বোচ্চ আদালতে মামলায় হেরে গিয়ে বাড়ী হারিয়ে এখন আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে মিথ্যাচারে লিপ্ত হয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন, কবিরহাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আমিন রুমি। উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মফিজ উল্যাহ বিকম সহ উপজেলা আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এদিকে শনিবার দুপুরে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগও ব্যরিষ্টার মওদুদ আহমদের মিথ্যা বক্তব্যের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। এতে বক্তব্য রাখেন, নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। এসময় উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতা রফিকুল ইসলাম চৌধুরী, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম ছরওয়ার, পৌরসভা যুবলীগের সভাপতি লুৎফুর রহমান মিন্টু প্রমুখ।


ঢাকা, জুলাই ২৯(বিডিলাইভ২৪)// আর কে
 
        print


মোবাইল থেকে অ্যাপস ডাউনলোড করুন
android iphone windows




bdlive24.com © 2010-2014
Powered By: NRB Investment Ltd.