সর্বশেষ
শনিবার ৬ই শ্রাবণ ১৪২৫ | ২১ জুলাই ২০১৮

পূবালী ব্যাংকের সাবেক কর্মকর্তাসহ দুজনকে কারাদণ্ড

বুধবার, আগস্ট ২, ২০১৭

900497762_1501676808.jpg
চট্টগ্রাম ব্যুরো :
৩০ বছর আগে ৯৩ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দায়ের হওয়া দুটি মামলায় পূবালী ব্যাংকের সাবেক কর্মকর্তাসহ দুজনকে ৭ বছর করে ১৪ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তিনজনকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়ছে।

বুধবার দুপুরে চট্টগ্রাম বিভাগীয় বিশেষ জজ মীর মো. রহুল আমিন এ রায় দিয়েছেন।

দণ্ডিতরা হলেন- পূবালী ব্যাংকের উত্তর পতেঙ্গা শাখার সাবেক হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা এস এম গোলাম খালেক ও টেনিকো ইন্ডাস্ট্রিজ নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক এস এম রফিক। বর্তমানে দুজনই পলাতক আছেন।

খালাস পাওয়া তিনজন হলেন- পূবালী ব্যাংকের উত্তর পতেঙ্গা শাখার সাবেক কর্মকর্তা কামাল উল ইসলাম, শরীফ উল্লাহ ও হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা আব্দুল আউয়াল। এছাড়া মামলার প্রধান আসামি পূবালী ব্যাংকের উত্তর পতেঙ্গা শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক আবুল হোসেন মারা যাওয়ায় তাকে আগেই অভিযোগ থেকে অব্যাহতির আদেশ দিয়েছিলেন বিচারক।

এ প্রসঙ্গে দুদক পিপি মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, আদালত দুটি মামলায় সাত বছর করে ১৪ বছর কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন।  এছাড়া আত্মসাত করা অর্থ তিন ভাগ করে পরিশোধেরও নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। পরিশোধে ব্যর্থ হলে আরও এক বছর করে কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে।

দুদক পিপি বলেন, ১৯৮৭ সালের ৮ ডিসেম্বর পূবালী ব্যাংকের পাঁচ কর্মকর্তাসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে বন্দর থানায় দুটি মামলা দায়ের করেছিলেন দুদকের তৎকালীন পরিদর্শক আবু মো. আরিফ সিদ্দিকী। এর মধ্যে একটি মামলায় ৩১ লাখ টাকা এবং আরেকটি মামলায় ৬২ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছিল। মামলার তদন্ত শেষে ১৯৯৪ সালের ২২ মার্চ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেছিলেন দুদকের আরেক পরিদর্শক মোহাম্মদ ইসলাম। ১৯৯৫ সালের ২২ এপ্রিল ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫ (২) ধারায় অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। মামলায় মোট ১৪ জনের সাক্ষ্য নেওয়া হয়।

ঢাকা, বুধবার, আগস্ট ২, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এস এইচ এই লেখাটি বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন