সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৭ই ফাল্গুন ১৪২৪ | ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ঢাবিতে বার্ষিক চিত্রকলা প্রদর্শনী

2017-08-07 21:10:20

618323319_1502118620.jpg
ঢাবি প্রতিনিধি :
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চারুকলা অনুষদের অঙ্কন ও চিত্রায়ণ বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীদের বার্ষিক চিত্রকলা প্রদর্শণী-২০১৭ আজ সোমবার চারুকলা অনুষদের জয়নুল গ্যালারীতে উদ্বোধন করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন।

অনুষদের ডিন অধ্যাপক নিসার হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অধ্যাপক জামাল আহমেদ এবং অধ্যাপক ড. ফরিদা জামান। জুরিবোর্ডের পক্ষে বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক শিশির কুমার ভট্টাচার্য, স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন প্রদর্শনীর আহ্বায়ক আবদুস সাত্তার তৌফিক। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চারুকলা অনুষদের শিক্ষকবৃন্দ ছাড়াও বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

প্রদর্শনী উপলক্ষে চিত্রকর্মের স্বীকৃতিস্বরূপ তেল রং, জল রং, পেন্সিল এবং নিরীক্ষাধর্মী বিভাগে নয়জন শিক্ষার্থীকে পুরস্কৃত করা হয়। শহীদ শাহনেওয়াজ স্মৃতি পুরস্কার (পেন্সিল মাধ্যম) পেয়েছেন মো. নাজমুস সাকিম খান, শ্রেষ্ঠ মাধ্যম পুরস্কার (পেন্সিল) সৌরভ ধর, মাহবুবুল আমীন স্মৃতি পুরস্কার (জল রং) ভূটানের শিক্ষার্থী উগেন তেসরিং দয়া, শ্রেষ্ঠ মাধ্যম পুরস্কার (জল রং) সৈকত সরকার, দেলোয়ার হোসেন স্মৃতি পুরস্কার (তৈল রং) শাহানা মোস্তফা, শ্রেষ্ঠ মাধ্যম পুরস্কার (তৈল রং) মো. তরিকুল ইসলাম, কাজী আবদুল বাসেত স্মৃতি পুরস্কার- মো. রাকিবুল আনোয়ার, আনোয়ারুল হক স্মৃতি পুরস্কার- মো. রেজাউল করিম এবং নিরীক্ষাধর্মী কাজের শ্রেষ্ঠ পুরস্কার পেয়েছে শেখ ফাইজুর রহমান।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক তাঁর বক্তব্যে বলেন- চারুকলা, ব্যবসায় শিক্ষা বা বিজ্ঞান সব ধরণের শিক্ষার ক্ষেত্রেই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হচ্ছে সত্যিকার অর্থে মানুষ হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করা। ভালো পেশাজীবী অনেক পাওয়া যায় কিন্তু ভাল মানুষের বড়ই অভাব। চারুকলার শিক্ষার্থীরা প্রকৃতির কাছাকাছি থাকে বলে তাদের পক্ষে প্রকৃতির মতোই উদার হওয়া সম্ভব। একবিংশ শতাব্দীর জঙ্গীবাদী তৎপরতার যে সংকট তা থেকে পরিত্রাণের উপায় হচ্ছে ভাল মানুষ হওয়া। একজন প্রকৃত মনুষ্যত্ব সম্পন্ন মানুষ কখনও আরেকজন মানুষকে হত্যা করতে পারে না। উন্নত নৈতিক চরিত্র এবং উদার মানসিকতা তৈরী করতে হলে চারুকলা শিক্ষার অপরিসীম গুরুত্ব রয়েছে বলে উপাচার্য শিক্ষার্থীদের চারুকলা চর্চার সাথে সম্পৃক্ত হওয়ার আহ্বান জানান।

প্রদর্শনীতে ৬০জন শিক্ষার্থীর ৭২টি শিল্পকর্ম স্থান পেয়েছে, প্রতিদিন সকাল ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সকলের জন্য এই প্রদর্শনী উন্মুক্ত থাকবে। প্রদর্শনী চলবে ৭ থেকে ১৩ আগস্ট পর্যন্ত।

ঢাকা, 2017-08-07 21:10:20 (বিডিলাইভ২৪) // এ এম এই লেখাটি 0 বার পড়া হয়েছে