সর্বশেষ
শনিবার ৯ই আষাঢ় ১৪২৫ | ২৩ জুন ২০১৮

সান্ধ্যকালীন কোর্সের প্রতিবাদে ঢাবিতে মানববন্ধন

বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১০, ২০১৭

296967469_1502373493.jpg
ঢাবি প্রতিনিধি :
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগে সান্ধ্যকালীন কোর্স চালুর পরিকল্পনার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সায়েন্স এনেক্স বিল্ডিংয় চত্বরে এই মানববন্ধনে অংশ নেয় বিভাগের বিভিন্ন বর্ষের প্রায় দেড়শ শিক্ষার্থী।

মানববন্ধন থেকে শিক্ষার্থীরা অবিলম্বে আইন বিভাগে সান্ধ্যকালীন কোর্স খোলার পরিকল্পনা বাদ দিয়ে বিভাগের বিদ্যমান অন্যান্য সমস্যা সমাধানের প্রতি শিক্ষকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন ধরণের প্ল্যাকার্ড বহন করেন। এসবের মধ্যে ছিল ‘সান্ধ্যকালীন কোর্স খোলার পায়তারা বন্ধ কর’, ‘শিক্ষা কোন পণ্য নয়, শিক্ষা আমার অধিকার’, ‘বাণিজ্যিক নাইট কোর্স কোনভাবেই খুলতে দেয়া হবে না’, ‘আইন বিভাগে নাইট কোর্স চলবে না’, ‘নাইটকোর্স চালুর মূল উদ্দেশ্য মুনাফা অর্জন’ ইত্যাদি।

‘আইন বিভাগে বাণিজ্যিক নাইটকোর্স চালুরপায়তারা বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন’ ব্যানারে বক্তব্য রাখেন অধ্যয়নরত বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীপ্রতিনিধি।

বিভাগের ৩৯তম বর্ষের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী রাইদা কাইয়ুম বলেন, অন্যান্য বিভাগের তুলনায় আইন বিভাগে এমনিতেই দেড় বছর পিছিয়ে আছে। শিক্ষকরা সময়মত খাতা না দেখতে পারায় ফল প্রকাশে দেরি হয়। এখনই শিক্ষকরা নিয়মিত ক্লাশ-পরীক্ষা নিতে পারেন না সেখানে নাইটকোর্স চালু হলে কীভাবে সম্ভব তা আমার বোধগম্য নয়।  

৪৩তম ব্যাচের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী নুর হোসেন নয়ন বলেন, নিয়মিত শিক্ষার্থীদের শিক্ষাদান করতেই যেখানে বিভাগের শিক্ষকরা হিমশিম খাচ্ছেন সেখানে আবার নাইটকোর্সে অতিরিক্ত শিক্ষার্থী ভর্তির পরিকল্পনা অত্যন্ত বেদনাদায়ক। এই সময়ে আইন বিভাগে নাইটকোর্স চালু করা যায় না।

৪২ ব্যাচের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ আসাদ বলেন, বিভাগটিতে ভর্তি হওয়ার পর থেকেই দেখছি নানা সংকট। তার মধ্যে প্রধানতম হল ফল প্রকাশে বিলম্ব। এখন নতুন করে অতিরিক্ত শিক্ষার্থী ভর্তি করলেও শিক্ষক কিন্তু বাড়ছে না। সে হিসেবে এ কোর্স চালু করলে এ সমস্যা আরও বাড়বে।

মানববন্ধন সঞ্চালনা করেন ৪৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী আহসান শুভ্র। মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন ৪১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন মাহি, ৪৩তম ব্যাচের কিবরিয়া শিবলু, ৪৪তম ব্যাচের দীপ্ত ও সৈয়দ আব্দুল্লাহ প্রমুখ।

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১০, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // এস এইচ এই লেখাটি বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন