সর্বশেষ
রবিবার ১০ই আষাঢ় ১৪২৫ | ২৪ জুন ২০১৮

ঘুমের মধ্যে বোবায় ধরা; আসলে সেটি স্লিপ প্যারালাইসিস

শনিবার, আগস্ট ১২, ২০১৭

1205551688_1502545797.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
একটু রাত করে ঘুমিয়েছেন। রাতে ঘুমের মধ্যে হঠাৎ মনে হলো আপনি নড়তে পারছেন না, কথা বলছেন কিন্তু তা মুখ থেকে বের হচ্ছে না, মনে হচ্ছে শরীরের উপর কেউ চাপ দিয়ে ধরে রেখেছে। প্রচন্ড কষ্ট হচ্ছে কিন্তু কাউকে কিছুই বলতে পারছেননা।

এমন সমস্যা শুধু আপনার নয়, অনেকেরই ঘুমের মধ্যে এমনটি ঘটে। আর একটা আমাদের দেশের গ্রাম্য ভাষায় বোবায় ধরা বলা হয়। কেউ কেউ বলেন ভূতে ধরা। ঘুমের মধ্যে শরীরের অবস্থান এলোমেলো হলে এমনটি হয় বলে মনে করা হয়।

তবে এটা বোবা কিংবা ভূতে ধরা নয়। এটিকে ডাক্তারি ভাষায় বলা হয়- স্লিপ প্যারালাইসিস।  এমনটি হলে কী ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন তার সম্পর্কে আলোচনা করা হলো-

স্লিপ প্যারালাইসিস সম্পর্কে বিস্তারিত:
স্লিপ প্যারালাইসিস এমন এক অবস্থা যখন পুরোপুরি সজাগ অবস্থায় আপনি মোটামুটি পক্ষঘাতগ্রস্ত হয়ে পড়বেন। অনেক কারণেই এমন অবস্থা হতে পারে। হতে পারে নিদ্রাহীনতা বা হঠাৎ ঘুমে আচ্ছন্নতা রোগ যাকে বলে 'নারকোলেপসি'। আবার কিছু সময়ের জন্যে মানসিক ভারসাম্যহীনতার কারণেও এমন হতে পারে। আবার স্নায়বিক সমস্যার কারণেও স্লিপ প্যারালাইসিস অবস্থার সৃষ্টি হতে পারে।

এই অবস্থায় যেহেতু কথা বলা যায় না বা নড়া যায় না, কিন্তু মস্তিষ্ক সজাগ থাকে, তাই ভীতিগ্রস্ত হয়ে পড়া স্বাভাবিক। ভয়কে আরো বাড়িয়ে দিতে পারে হ্যালুসিনেশন।

আমেরিকার মন্টিফিয়োরে মেডিক্যাল সেন্টার এর ঘুম বিশেষজ্ঞ ড. শেলবি হ্যারিস ফক্স নিউজের একটি প্রতিবেদনে জানান, সাধারণত ঘুমের র‍্যাপিড আই মুভমেন্ট (আরইএম) স্তরে স্লিপ প্যারালাইসিস হয়ে থাকে। আরইএম এমন এক অবস্থা যখন মস্তিষ্ক সচল হয়ে যায় কিন্তু পেশী থাকে নিষ্ক্রিয়।

হ্যারিস আরো জানান, তবে এটা কোনো রোগ নয়। স্লিপ প্যারালাইসিসের কারণে বড় কোনো ক্ষতিও হয় না। তাই এটি নিয়ে চিন্তা করার কিছু নেই। মানসিক চাপ কমিয়ে এই অবস্থাকে এড়িয়ে চলা যায়। আর যদি ঘন ঘন স্লিপ প্যারালাইসিস এর শিকার হতে থাকেন, তবে একজন চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে পারেন।

লক্ষণ:
# মনে হতে পারে আপনি কোথাও আটকে রয়েছেন। মনে হতে পারে নিজের শরীরের মধ্যেই আটকে রয়েছেন। নড়তে পারছেন না। চেষ্টা করছেন তবে হাত-পা নাড়াতে পারছেন না। অনেকের এক্ষেত্রে বুকে চাপ অথবা শ্বাসকষ্টও অনুভূত হতে পারে।

# শরীর নাড়াতে পারবেন না তো বটেই, মুখও নাড়াতে পারবেন না। অর্থাৎ কথা বলতে পারবেন না। ফলে সাহায্যের প্রয়োজন হলেও কাউকে জানাতে পারবেন না। মনে হবে কথা বলার চেষ্টা করেও আপনি ব্যর্থ হচ্ছেন।

# অদ্ভূত সব স্বপ্ন দেখবেন, হ্যালোসিনেশনের শিকার হবেন। ঘুমের মধ্যে এমন হলে শরীর অসাড় হয়ে যায়। স্বপ্ন দেখা ঘুম ও তন্দ্রা অবস্থার মাঝামাঝি সময়ে এই ধরনের বিপদ আসতে পারে। অনেক সময়ে ঘুমের মধ্যে মনে হতে পারে বুকের উপরে কেউ চেপে বসে রয়েছে।

রেহাই পাওয়ার উপায়:
# ঘুমের মধ্যে এমন ধরনের সমস্যা হলে ঘুমানোর সময় বদলে ফেলতে পারেন। তবে ঘুমানোর সময়ে বারবার বদল এলে নিদ্রাহীনতা আপনাকে কাবু করবে। ফলে নানা ধরনের সমস্যায় পড়বেন। তাই নির্দিষ্ট সময়ে ঘুমাতে যান। এবং স্লিপ সাইকেল তৈরি করুন।

# ক্লান্তি ও উদ্বেগ স্লিপ প্যারালাইসিসের সমস্যা তৈরি করতে পারে। যার ফলে রাতে দুঃস্বপ্ন দেখতে পারেন। ফলে ঘুমের মধ্যে নানা ধরনের সমস্যা কমাতে হলে ক্লান্তি ও উদ্বেগ কমিয়ে ফেলুন।


ঢাকা, শনিবার, আগস্ট ১২, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন