সর্বশেষ
শনিবার ৬ই মাঘ ১৪২৪ | ২০ জানুয়ারি ২০১৮

কোমর ব্যথায় করণীয়

সোমবার ১৪ই আগস্ট ২০১৭

1705930392_1502724451.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
কোমরে ব্যথা আমাদের সবার কাছেই একটা পরিচিত সমস্যা। সারা জীবনে একবারও কোমরে ব্যথা অনুভব করেননি এমন মানুষ বিরল। মেরুদণ্ডের নিচের হাড়ের মধ্যবর্তী তরুণাস্থি বা ডিস্কের বার্ধক্যজনিত পরিবর্তনের কারণে এ ব্যথার সূত্রপাত হয়। সাধারণত এ পরিবর্তন ৩০ বছর বয়স থেকে শুরু হয়। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই এ রোগের কোনো উপসর্গ থাকে না। তবে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রোগের উপসর্গও বাড়তে থাকে।

বিভিন্ন কারণে কোমরে ব্যথা হতে পারে। কিন্তু আমাদের দৈনন্দিন জীবনে কাজ করার কিছু ধরন আছে যা মেনে না চললে অল্প বয়সেই কোমরে ব্যথায় আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা থাকে। তাই এ ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে কিছু সতর্কতা তো মেনে চলতেই হবে। জেনে নেয়া যাক আমাদের প্রতিদিনে সাধারণ কিছু কাজে কি কি সাবধানতা মেনে চলতে পারলে কোমর ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

১.ত্রিশ মিনিটের বেশি একনাগাড়ে কোথায়ও বসে বা দাঁড়িয়ে থাকবেন না। একনাগাড়ে কোথাও দাঁড়িয়ে থাকার দরকার হলে শরীরের ভর এক পা হতে আরেক পায়ে নিন কিছুক্ষণ পর পর। প্রয়োজনে একটু বসে বিশ্রাম নিন।

২. চেয়ারে বসার সময় কোমর সোজা রেখে বসুন। এজন্য দু’একটি ছোট কুশন কোমরের নিচের অংশে রেখে বসতে পারেন। এতে কোমর সোজা হয়ে থাকবে।

৩. ঘাড়ে ভারী কিছু তোলা থেকে বিরত থাকুন। বেশি দরকার হলে ভারী জিনিসটি শরীরের কাছাকাছি রাখুন; চেষ্টা করুন কোমরে চাপ না লাগাতে।

৪. হাঁটু না ভেঙ্গে সামনের দিকে বেশি ঝুঁকবেন না। দীর্ঘ সময় হাঁটতে হলে মহিলারা হাই হিল পরিহার করুন।

৫. মাটি হতে বা নিচ থেকে কিছু তোলার দরকার হলে না ঝুঁকে হাঁটু ভাজ করুন অতঃপর তুলুন।

৬. কোথাও বসলে সোজা হয়ে বসুন, ঝুঁকে বসা থেকে বিরত থাকুন। এতে আপনার স্মার্টনেস বৃদ্ধি পাবে আর বাড়বে কনফিডেন্স। পাশাপাশি এতে পেতে পারেন কোমরের ব্যথা হতে মুক্তি।

৭. বিছানায় উপুড় হয়ে শোবেন না। আর ফোম বা নরম স্প্রিং এর গদি যুক্ত বিছানা শরীরের তথা কোমরের জন্য ভাল নয়। পাতলা তোশক ও সমান হলে ভাল হয়।

৮. নিয়মিত শারীরিক অর্থাৎ কায়িক পরিশ্রম করুন। শারীরিক শ্রমের সুযোগ না থাকলে ব্যায়াম করুন। হাঁটার যতটুকু সুযোগ আছে কাজে লাগান।

৯. বয়স ও উচ্চতা অনুযায়ী ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন। পুষ্টিকর খাবার ও পানি পরিমাণ মত খান। কেননা ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকলে কোমরে চাপ কম পড়বে।

১০. নানাবিধ কাজ করার সময় আমাদের ঝুঁকে কাজ করতে হয় যেমন রান্না, কাটা-কোটা, কাপড়চোপড় ধোয়া, মশলা বাটা, ঝাঁট দেয়া বা চাপকল চাপার সময়। এসব ক্ষেত্রে মেরুদণ্ড স্বাভাবিক রাখুন এবং কোমর সোজা রাখুন।



ঢাকা, সোমবার ১৪ই আগস্ট ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // ম. উ এই লেখাটি 18 বার পড়া হয়েছে