সর্বশেষ
শুক্রবার ১০ই ফাল্গুন ১৪২৪ | ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

হৃদরোগের কিছু সাধারণ লক্ষণ

মঙ্গলবার ২৯শে আগস্ট ২০১৭

571236544_1503965968.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
হৃদপিণ্ডের কাজ বন্ধ হয়ে যাওয়া মানেই মৃত্যু। সুতরাং এ নিয়ে হেলাফেলার কোনো সুযোগ নেই। তাই হৃদপিণ্ড কতটা সুস্থ রয়েছে সেদিকে খেয়াল রাখাটাও জরুরি। নানা কারণে হৃদপিণ্ড দুর্বল হয়ে পড়ে। ফলে মানুষ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়।

হৃদরোগের মতো গুরুতর সমস্যার কিছু বিশেষ লক্ষণ রয়েছে, যা দেখা দিলে দ্রুত চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন-

# শ্বাসকষ্ট
ঘনঘন শ্বাসকষ্ট হলে অবশ্যই সাবধান হওয়া জরুরি। সামান্য চলাফেরা বা হাঁটাহাঁটিতে, সিঁড়ি বেয়ে দু-তিন তলায় উঠতে গেলে, অজু, গোসল ও নামাজ পড়তে গেলে, টয়লেট করতে, অনেকেই আবার পরিধেয় পোশাক পরিবর্তনের সময় শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত হয়।

# বুকে অস্বস্তি
হৃদরোগের প্রাথমিক ধাপের একটি হলো বুকের ভেতরে অস্বস্তি। বুকে ব্যথা বা চাপ অনুভব করতে পারেন। ধমনীতে কোনোভাবে রক্ত চলাচল আটকে গেলে হার্ট অ্যাটাক হতে পারে। যার আগাম সংকেত দেয় বুকে ব্যথা।

# মাথা ঘোরানো
অনেক সময় না খেলে, ঠিকমতো বিশ্রাম না নিলে মাথা ঘোরাতে পারে। তবে যদি এই সমস্যা বেশ কিছুদিন স্থায়ী হয় এবং এর সঙ্গে শ্বাস নিয়ে সমস্যা ও বুকে অস্বস্তি হয় তাহলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

# অনিয়মিত হৃদস্পন্দন
যদি লক্ষ্য করেন হৃদস্পন্দনের গতির হেরফের হচ্ছে, সামান্য কাজ করতে গিয়েও হাঁফিয়ে উঠছেন, তাহলে সাবধান। সঙ্গে সঙ্গে দেরি না করে হৃদরোগ বিশেষজ্ঞকে দিয়ে একবার পরীক্ষা করে নিন।

# নাক ডাকা
অনেকেই ঘুমের মধ্যে নাক ডাকেন। তবে যদি দেখেন আপনার আপনজন কেউ ঘুমের মধ্যে নিয়মিত অত্যধিক পরিমাণে নাক ডাকছেন, তাহলে সতর্ক হোন। কেননা এর মানে হলো, ঘুমের সময় ঠিকমতো শ্বাস-প্রশ্বাস চলছে না। যে কারণে হার্টকে অতিরিক্ত পরিশ্রম করতে হচ্ছে।

# গলা ও চোয়াল ব্যথা
গলা বা চোয়াল ব্যথার অন্য কারণ হতেই পারে। তবে বুক থেকে ব্যথা গিয়ে চোয়াল বা গলায় আটকালে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

# অতিরিক্ত ঘাম
পরিশ্রম করছেন না, কিন্তু তাও হঠাৎ হঠাৎ খুব ঘামছেন। এটাও অন্যতম লক্ষণ।

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৯শে আগস্ট ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // ই নি এই লেখাটি 18 বার পড়া হয়েছে