সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৭ই ফাল্গুন ১৪২৪ | ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ধর্মগুরু রাম রহিমের আশ্রম থেকে ১৮ নাবালিকা উদ্ধার

2017-09-04 18:02:25

1026453083_1504526545.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
ভারতের হরিয়ানার বিতর্কিত ধর্মগুরু রাম রহিমের ডেরা সাচ্চা সওদার মূল আশ্রম থেকে ১৮ জন নাবালিকাকে উদ্ধার করা হয়েছে। রাম রহিমের জেলে যাওয়ার পর এক সপ্তাহ কেটে গেলেও এখনও পুরো এলাকা ঘিরে রেখেছে দেশটির সেনাবাহিনী। চলছে তল্লাশি অভিযান।

রাম রহিম জেলে যাওয়ার পরই সিরসায় ডেরার আস্তানা থেকে তার পরিবার ও পালিত কন্যা হানিপ্রীত বেপাত্তা। পুলিশ দাবি করে প্রায় ১০০০ একর জায়গার ওপর এই আশ্রমে তল্লাশি চালানো একদিনের কাজ নয়। এরপর প্রায় এক সপ্তাহ পরে ডেরা হেডকোয়ার্টার থেকে বিপুল অস্ত্র -শস্ত্র উদ্ধারের দাবি করল পুলিশ। ডেরা হেডকোয়ার্টারে তল্লাশি অভিযানে ১৮ জন নাবালিকা ও ৩৪ জন নাবালককেও উদ্ধার করা হয়েছে।

রোহতক জেলে এখন অনেকটাই ধাতস্থ হয়েছেন রাম রহিম। জেলে বাগানের কাজেও লেগেছেন তিনি। দৈনিক ৪০ টাকা মজুরি দেওয়া হবে তাকে। তবে এখনও মাঝে মধ্যেই দেওয়ালের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। অভিযোগ করেছেন জেলের খাওয়া- দাওয়া নিয়েও।

ধর্মগুরু রাম রহিম ডেরা সাচা সাওদার প্রধান। তার অধীনে ৩৮টির মতো আশ্রম রয়েছে। মূল আশ্রমটি হরিয়ানার সিরসায়। গরিব মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে জনপ্রিয়তা কুড়ালেও তার জীবন-যাপন নিয়ে বিতর্কের অন্ত নেই। আশ্রমের নারী সেবিকাদের ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। খুনের অভিযোগও আছে। তার অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বললে নানাভাবে তাদের হয়রানি করা হতো। তার অর্থের উৎস নিয়েও বিতর্ক রয়েছে। আশ্রমের দুই নারীকে ধর্ষণের দায়ে পৃথক দুই মামলায় ১০ বছর করে মোট ২০ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে তার। 

ঢাকা, 2017-09-04 18:02:25 (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি 0 বার পড়া হয়েছে