সর্বশেষ
সোমবার ১৩ই ফাল্গুন ১৪২৪ | ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

শোক দিবসের সব অনুষ্ঠানেই অনুপস্থিত সভাপতি

সোমবার ৪ঠা সেপ্টেম্বর ২০১৭

1696690137_1504547977.jpg
প্রবাসী ডেস্ক :
সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি শ্রী অনিল দাশ গুপ্তকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান শাহাদাত বার্ষিকী ১৫ আগস্ট উপলক্ষে জাতীয় শোক দিবসে দেশে এবং প্রবাসের কোন অনুষ্ঠানেই দেখা যায়নি বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত বাংলাদেশ দূতাবাস জার্মান এবং জার্মান আওয়ামী লীগ এর দুই গ্রূপের কোন অনুষ্ঠানে দেখা যায়নি সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামীলীগের সভাপতি শ্রী অনিল দাশ গুপ্তকে। অবশ্য বিগত ১০-১৫ বছর ও জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে অনুপস্থিতি লক্ষণীয় ছিল সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতির।

জানা গেছে, শুধুমাত্র মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইউরোপ সফরে আসলে অনিল দাশ গুপ্তকে দেখা যায়। এছাড়া ইউরোপের কোন দেশে কর্মীদের সাথে কোন যোগাযোগ নেই এবং কোন সাংগঠনিক কাজ করতে দেখা যায় না তাকে। সর্বশেষ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অস্ট্রিয়া সফরের সময় শ্রী অনিল দাশ গুপ্ত দলের কর্মীদের তোপের মুখে পুলিশ প্রহরায় সংবর্ধনা স্থল ত্যাগ করার পর সুইডেনে প্রধানমন্ত্রীর সফরের সময় অনুপস্থিত ছিলেন। এরপর থেকে আর কোন অনুষ্ঠানে দেখা যায়নি তাকে।

সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এম.এ. গনি জাতীয় শোক দিবস অনুষ্ঠানে বেলজিয়াম আওয়ামী লীগ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এবং ইউরোপিয়ান পার্লামেন্ট মেম্বারদের আওয়ামী লীগ সরকারের কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করেন। এছাড়া সুইজারল্যান্ড আওয়ামী লীগের জাতীয় শোক দিবস অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন এম.এ. গনি। সুইজারল্যান্ড আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠানে শ্রী অনিল দাশগুপ্তের উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও শেষ মুহূর্তে তিনি ছিলেন না। জার্মান আওয়ামী লীগের দুই গ্রূপের জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানেও ছিলেন না।

এই ব্যাপারে জার্মান আওয়ামী লীগের এক নেতা (নাম না বলার শর্তে) অভিযোগ করে বলেন, কেউ এখন আর শ্রী অনিল দাশ গুপ্তকে দাওয়াত করেন না কারণ জার্মান আওয়ামী লীগের উভয় গ্রূপকে উস্কানি দিয়ে রেখেছেন তিনি। এই নিয়ে জার্মান আওয়ামী লীগের অনেক নেতা কর্মীর শ্রী অনিল দাশ গুপ্তের উপর ক্ষোভ রয়েছে। সেই সাথে ইউরোপ আওয়ামী লীগের ও অনেক দেশের নেতা কর্মীদের ও ক্ষোভ রয়েছে জাতীয় শোক দিবস অনুষ্ঠানে শ্রী অনিল দাশ গুপ্তের অনুপস্থিতি নিয়ে।

ঢাকা, সোমবার ৪ঠা সেপ্টেম্বর ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // ই নি এই লেখাটি 12 বার পড়া হয়েছে