সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৮ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ | ২২ মে ২০১৮

হজমের জন্য দই-বোরহানি

মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৭

1777081238_1504609718.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
একটু ভারি খাবারের পর সাধারনত হজমের জন্য আমরা বোরহানি আর দইই খেয়ে থাকি। আর পরিবারের ছোট থেকে বড় সবারই পছন্দের তালিকায় থাকে দই আর বোরহানি। যদিও এসবকিছুই আজকাল বাজারেই কিনতে পাওয়া যায়। তবুও এবারের ঈদে না হয় ঘরেই তৈরি করুন এ ধরনের মজাদার আর সহজ খাবার।

ঘরে পাতা দই:
একটু ভারি খাবারের পর দই খাওয়া অনেকেই পছন্দ করেন, বিশেষ করে মিষ্টি দই। এবং এটি স্বাস্থ্যের জন্য বেশ ভালো। ইচ্ছে হলে ঘরেই জমিয়ে ফেলতে পারেন দোকানের মতো সুস্বাদু ও পারফেক্ট মিষ্টি দই, খুব সহজেই।

দই তৈরিতে যা লাগবে:
ফুলক্রিম দুধ ১ লিটার, টক দই ২৫০ গ্রাম, চিনি ১/২ কাপ বা স্বাদ মতো, কাঁচের, মাটির ,প্লাস্টিক, মেলামাইনের বা সিরামিক যে কোনো পাত্রেই বানাতে পারবেন।

প্রণালী:
১। দুধ ফুটিয়ে পৌনে ১ লিটার করুন। ক্রমাগত নেড়ে নেড়ে ১ লিটারের কিছু কম করে নিতে হবে। অন্য একটা পাত্রে চিনি ও খুবই সামান্য পানি দিয়ে জ্বালিয়ে ক্যারামেল তৈরি করুন। কম আঁচে চুলার ওপর বার বার নেড়ে নেড়ে মেশাতে থাকুন। চিনি লালচে হলে নামিয়ে তারপর এতে ফুটিয়ে রাখা গরম দুধ মিশিয়ে আবার কিছুক্ষণ নাড়ুন। এতে করে দই এ দারুণ বাদামি কালার আসবে।

২। দুধ মোটামুটি ঠাণ্ডা করে নিন, আপনার হাতের আঙুল ডুবিয়ে রাখলে গরম সহ্য হয় ততটা ঠান্ডা করলেই চলবে। তবে সাবধান এর বেশি গরম থাকলে এতে টক দই মেশানোর পর কিন্তু চান কেটে যাবে। একটা পাত্রে টক দইটা ভাল করে ফেটে নিয়ে তাতে দুধ মেশান। এমন ভাবে মেশাবেন যাতে দুধের সাথে দইটা পুরোপুরি মিশে যায় আর মিশ্রণে ফেনা উঠে। এর জন্য আপনি ইলেকট্রিক বা নরমাল এগ বিটার ব্যবহার করতে পারেন।

৩। যে পাত্রে দই জমাতে চান তাতে ঢেলে কিছু একটা দিয়ে ঢেকে দিন। ওভেনে ঢুকিয়ে (৫০-৮০ ডিগ্রি সে) রাখুন দিয়ে ১ ঘন্টা মতো, তারপর ওভেন বন্ধ করে দিবেন। ২ ঘণ্টা পরে দই জমে গেলে বের করে এনে ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা পরিবেশন করুন।

টিপস:
* টক দই মেশানোর সময় মনে রাখবেন বেশি মেশালে ক্ষতি নেই, কিন্তু কম হলে দই ঠিক মত জমবে না।

* চেষ্টা করবেন যাতে টকদইয়ের পানি দুধের মিশ্রনে না যায়। অনেক সময় পানিসহ দই মেশালে দই ভাঙার পর পানি কাটে বেশি।      Related image


বোরহানি:
কোরবানি ঈদে বোরহানির তুলনা হয়না। টক দই, বিট লবণ ইত্যাদি নানা এসিড বিরোধী উপাদান দিয়ে তৈরি বলে এটি হজমে খুবই সহায়ক ভূমিকা পালন করে। তাই ঘরেই তৈরি করুণ স্পেশাল বোরহানি। জেনে নিন বোরহানি বানানোর রেসিপি।

উপকরণ:
মিষ্টি দই ১ কেজি, টক দই ১ কাপ, মালাই দেড় কাপ, অ্যামন্ড বাদাম (কাঠবাদাম) ৪ টেবিল-চামচ, পোস্তদানা বাটা ১ টেবিল-চামচ, সরিষা গুঁড়া ২ টেবিল-চামচ, লবণ পরিমাণমতো, বিট লবণ ১ টেবিল-চামচ, পুদিনাপাতা বাটা ২ টেবিল-চামচ, কাঁচামরিচ বাটা ২ চা-চামচ বা পরিমাণমতো, সাদা গোলমরিচ গুঁড়া দেড় চা-চামচ, জিরা (টালা গুঁড়া) দেড় চামচ, ধনে (টালা গুঁড়া) দেড় চামচ, পানি (দইয়ের ঘনত্ব বুঝে), তেঁতুলের রস (বোরহানির টক বুঝে)।

প্রস্তুত প্রণালী:
প্রথমে দুই কাপ পানির সঙ্গে সব মসলা মিশিয়ে ছেঁকে নিতে হবে। এরপর সব উপকরণ একসঙ্গে খুব ভালোভাবে ফেটিয়ে বা ব্লেন্ডারে মিশিয়ে নিতে হবে। প্রয়োজনমতো পানি দিতে হবে। এবার ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে পরিবেশন করতে হবে।

ঢাকা, মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // জে এইচ এই লেখাটি ২২৯ বার পড়া হয়েছে