bdlive24

মর্গে রাখার পর নড়ে উঠল ‘মৃতদেহ’

বৃহস্পতিবার সেপ্টেম্বর ০৭, ২০১৭, ০৫:৫৭ পিএম.


মর্গে রাখার পর নড়ে উঠল ‘মৃতদেহ’

বিডিলাইভ ডেস্ক: মারা গিয়েছেন মনে করে এক মহিলাকে মর্গে রেখে দিয়েছিল তার পরিবার। দীর্ঘ এক ঘণ্টা মর্গে পড়েও ছিল দেহ। তার পরেই দেখা যায়, ধীরে ধীরে শ্বাসপ্রশ্বাস চলছে। বেঁচে আছেন তিনি।

এমনই ঘটনা ঘটেছে ভারতের কেরালা রাজ্যের ইদ্দুকি জেলায়।

চল্লিশ বছর বয়সের ওই মহিলার নাম রাথনাম। দীর্ঘ দিন ধরেই তিনি জন্ডিসে ভুগছিলেন। গত দু’মাস ধরে তামিল নাড়ু রাজ্যের মাদুরাই শহরের এক হাসপাতালে তার চিকিৎসাও চলছিল। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, দেহের একাধিক অঙ্গ বিকল হয়ে গিয়েছিল রাথনামের। পরে মাদুরাই থেকে অ্যাম্বুলেন্সে করে কেরালা রাথনামের নিজের গ্রামে ফেরার পথেই আত্মীয়েরা দেখেন নড়াচড়া বন্ধ হয়ে গিয়েছে তার।

তাদের ধারণা হয় রাথনাম মারা গিয়েছেন। তাকে নিয়ে যাওয়া হয় একটি মর্গে। দীর্ঘ এক ঘণ্টা সেখানেই পড়ে থাকে দেহ। আত্মীয়দের মধ্যেই এক জন প্রথম লক্ষ্য করেন ব্যাপারটা। তিনি জানান, হঠাৎই দেখা যায় রাথনাম শ্বাস নিতে শুরু করেছেন। সামান্য নড়াচড়াও করছেন। সঙ্গে সঙ্গেই তাকে নিয়ে যাওয়া হয় কাট্টাপ্পানা গ্রামের এক বেসরকারি হাসপাতালে। চিকিৎসকেরা জানান, রাথনাম বেঁচে আছেন। পুলিশেও খবর দেওয়া হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃতদেহ মর্গে নিয়ে যাওয়ার আগে হাসপাতাল এবং চিকিৎসকের থেকে অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন হয়। কিন্তু রাথনামের আত্মীয়েরা সেটা করেননি। মরে গেছেন ভেবে, মর্গের চেনাপরিচিতের মাধ্যমে বেআইনি ভাবে সেখানে দেহ রেখে দেওয়া হয়েছিল। চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলেই জানা যেত, মহিলা মারা যাননি। তবে এ যাত্রা বেঁচে থাকলেও, শেষ পর্যন্ত কত ক্ষণ বা কত দিন তাকে বাঁচিয়ে রাখা যাবে তা নিয়ে যথেষ্টই সন্দেহ রয়েছে চিকিৎসকদের।

এ বছরের শুরুর দিকে একই ধরণের ঘটনা ঘটেছিল কর্ণাটকে। কুকুরের কামড়ে মৃত্যু হয়েছে মনে করে এক কিশোরকে শেষকৃত্যের জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। মাঝপথে দেখা যায় সে বেঁচে আছে।


ঢাকা, সেপ্টেম্বর ০৭(বিডিলাইভ২৪)// জেড ইউ
 
        print



মোবাইল থেকে অ্যাপস ডাউনলোড করুন
android iphone windows




bdlive24.com © 2010-2014
Powered By: NRB Investment Ltd.