bdlive24

সবুজে-সবুজে সাজুক ঘর

সোমবার সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৭, ০১:১২ পিএম.


সবুজে-সবুজে সাজুক ঘর

বিডিলাইভ ডেস্ক: নগরের যান্ত্রিকতায় স্বেচ্ছায় কিংবা প্রয়োজনের তাগিদেই আমাদের বাস। সারাদিন বিশ্ববিদ্যালয় বা অফিস শেষ করে নিজের বাড়ি ফিরে প্রশান্তি পেতে কার না ইচ্ছা হয়। তবে নগরের ছোট্ট বাসাটি যদি পরিপাটি বা গেছানো থাকে কবেই সম্ভব প্রশান্তির সাগরে গাঁ ভাসানো। পরিপাটি বা গেছানোতে কোনো কমতি থাকলে সারাদিনের সেই ক্লান্তি আরও ক্লান্ত করে দেবে আমাদের।

আর ঘরটা যদি হয় সবুজে সবুজে সাজানো, তবে এক নিমিষেই দূর হয়ে যাবে সকল অবসান। এমনকি নতুন অতিথি বাড়িতে আসলেও স্বাচ্ছন্দ বোধ হবে।

জেনে নেয়া যাক সবুজের সমারোহে ঘর সাজানোর কিছু উপায়:
১. ঘরের প্রবেশ পথে ক্যাকটাস বা রোদ ছাড়া টবে বাঁচতে পারে এমন কিছু গাছ লাগানো যায়। এতে নতুন অতিথি বাড়িতে আসা মাত্রই আপনার সুরুচির পরিচয় পাবেন।

২. গৃহের সৌন্দর্যের মূল ব্যাপারটি যেন বসার ঘরকে কেন্দ্র করে। আমরা এই বসার ঘরটিতে কত রকমের দেশি-বিদেশি শো-পিস দিয়েই তো সাজাই। কিন্তু প্রকৃতিগত দিক বা প্রাকৃতিক দিক চিন্তা করে যদি একবার ফুল-লতা-পাতা অর্থাৎ সবুজ গাছ-পাতা দিয়ে সাজাতে পারি তাহলে একই সাথে ঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধি এবং পরিবেশ বান্ধব উভয় ব্যাপারের সমন্বয় ঘটবে। আর বসার ঘরে মানিপ্ল্যান্ট বা ছোট আকৃতির গাছ থাকলে দেখতেও বেশ ভাল লাগবে।

৩. আপনার বাসার খাবার ঘরটিতে যদি ছোট একটা টবে লেটুস বা ধনে পাতার মত গাছ রোপণ করতে পারেন তাহলে এর সুগন্ধে খাবার সময় আপনার ভালো লাগাটা বাড়বে বৈকি কমবে না! এছাড়া অন্য কোন গাছের ব্যবহারও বাড়িয়ে দিতে পারে আপনার ডাইনিং রুমের জেনও।

৪. বেডরুমে বিছানার পাশে সামান্য ফাঁকা জায়গা থাকলেও সেই জায়গাটা কাজে লাগাতে পারেন। সেখানে এমন কোন গাছ লাগাতে পারেন, যা কিনা একই সাথে আপনার ঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধির পাশাপাশি আপনার বিশেষ কোন কাজেও লাগবে। যেমন- তুলসীর মত ছোট্ট গাছটিই লাগিয়ে দেখুন না কি চমৎকার কাজে আসবে তার চাক্ষুস প্রমাণ পেয়ে যাবেন। কারণ ঘরে তুলসী গাছ থাকলে মশার আনাগোনা রীতিমত কমে যায়। আবার কখনো কখনো থাকেও না। অন্যদিকে ঠাণ্ডা-কাশিতে তুলসীর রস বেশ উপকারি। সুতরাং বুঝতেই পারছেন আপনি কীভাবে একাধিকভাবে উপকার পেতে যাচ্ছেন।

৫. আপনার রান্না ঘরে যদি কিঞ্চিত জায়গা থাকে তাহলে সেখানেই একটা মরিচ গাছ লাগিয়ে দিন না? নিজের হাতে লাগানো গাছের দুটি মরিচ সালাদ করে খেয়ে দেখুন কি অমায়িক তৃপ্তি পাচ্ছেন! সুতরাং এই স্বাদ নিতে ভুল করবেন না যেন।

৬. আধুনিক এপার্টমেন্ট গুলোতে বসবাসকারী মানুষের উঠোনের চাহিদা মেটাতে ভরসা করতে হয় ছোট্ট বারান্দার মাধ্যমে। এখানকার ছোট পরিসরটুকু কাজে লাগিয়ে আপনি পেতে পারেন খানিক প্রশান্তি। পছন্দ মত গাছ কিনে এনে গাছে গাছে ভরে তুলুন আপনার এই অবসরে একটু প্রশান্তির আশ্রয়স্থলটুকু। যেন ভোরে ঘুম ভেঙ্গে এখানে এসেই সারাদিনের জন্য অন্তত কিছুটা হলেও নিজেকে প্রস্তুত করতে পারেন।

৭. আর যদি আপনার নিজের একটা বাড়ি থেকে থাকে তাহলে তো সোনায় সোহাগা। বোনাস হিসেবে পেতে পারেন একটা বিশাল ছাদ। যেখানে চাইলেই আপনি আপনার পছন্দের ফল-ফুল কিংবা ঔষধি গাছও লাগাতে পারেন।

সতর্কতা:
গৃহসজ্জায় গাছ লাগাতে হলে একটু বাড়তি সতর্কতারও প্রয়োজন আছে। লক্ষ্য রাখতে হবে যেন আপনার টবের গোঁড়ায় পানি না জমে। এছাড়া গাছগুলো যদি ছায়ায় রাখা হয় তাহলে সময় করে মাঝে মাঝে আপনার সুবিধা মত সময়ে গাছকে কিছু সময়ের জন্য রোদে দিতে পারেন। এতে আপনার গাছগুলো আরো বেশি ভাল থাকবে।

উপকারিতা:
প্রতিদিনের অবসরে আপনার বাড়ির গাছগুলোকে একটু চর্চা করে দেখুন আপনার মানসিক স্বাস্থ্যের কতটা উন্নতি হয়। দিনের শুরুতে এই সামান্য আয়োজন আপনার দিনটাকে ইতিবাচকতায় ভরিয়ে তুলতে পারে। আপনার ভাল থাকাকে অনেক খানি বাড়িয়ে দিতে পারে। কারণ যারা গাছ ভালোবাসে তারা সচরাচর কোন খারাপ কাজ করতে পারে না। আর ভাল কাজ এমনিতেই আপনাকে মানসিকভাবে চাঙ্গা রাখবে। সুতরাং নগর জীবনের এই যান্ত্রিকতা থেকে ক্ষণিক প্রশান্তির উৎস পেতে আর দেরি করবেন না। এখনি গাছ লাগান। আর এর নানাবিধ উপকারিতা গ্রহণ করুন।


ঢাকা, সেপ্টেম্বর ১১(বিডিলাইভ২৪)// জে এইচ
 
        print



মোবাইল থেকে অ্যাপস ডাউনলোড করুন
android iphone windows




bdlive24.com © 2010-2014
Powered By: NRB Investment Ltd.