সর্বশেষ
সোমবার ১১ই আষাঢ় ১৪২৫ | ২৫ জুন ২০১৮

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে গৃহবধূ হত্যা

মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৭

537643603_1505216501.jpg
নোয়াখালী প্রতিনিধি :
নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে জান্নাতুল ফেরদাউস (১৯) নামের এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনার পর থেকে দেবর মিজান (৩০), শুভ (২৮) এবং শাশুড়ি দুলালী বেগম (৫৫) পলাতক রয়েছে।

আজ মঙ্গলবার সকালে ঘরের ভেতর থেকে ওই গৃবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় জান্নাতুল ফেরদাউসের কৃষক বাবা আবুল হোসেন (৬৫) বেগমগঞ্জ থানায় মামলা করতে গিয়ে বিড়ম্বনায় পড়তে হয়।

জানা যায়, গত ২০১৫ সালের ৮ নভেম্বর বেগমগঞ্জ উপজেলার আমানউল্লাহপুর ইউপির মহিষপুর গ্রামের রৌশন আলী মুন্সী বাড়ির আবুল হোসেনের মেয়ের সাথে একই উপজেলার আলাইয়ারপুর ইউনিয়নের মিয়াপুর গ্রামের কুমিল্লা সেনাবাহিনীর অধীনে বেসরকারিভাবে কর্মরত বাবুর্চি জয়নাল মিয়ার ছেলে মনির হোসেনের বিয়ে হয়।

মনির হোসেনও রাজশাহী সেনাবাহিনীর অধীনে বেসরকারিভাবে টেকনিক্যাল বিভাগের পাইপ ফিটিংসের কাজ করে থাকে। বিয়ের পর থেকে ছেলের অজান্তে ভাই ও মা মিলে গোপনে যৌতুক চাইতো জান্নাতের পরিবারের কাছে। প্রায় সময় যৌতুকের বিষয় নিয়ে তার শাশুড়ির সাথে জান্নাতের ঝগড়া-বিবাদ হতো বলে জানায় মেয়ের মামা নজরুল ইসলাম নজির।

এদিকে লাশ থানায় আনলেও পুলিশ লাশের ছবি তুলতে বাধা দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীরা। ধারনা করা হচ্ছে, লাশের গায়ে আঘাতের চিহৃ থাকায় পুলিশ তা গোপন রাখতে চাইছে। পরে লাশ নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পোস্ট মডেমের জন্য মর্গে পাঠায়।

বেগমগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ সাজেদুর রহমান সাজিদ জানায়, যেহেতু লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে, তাই আপাতত একটি ইউডি মামলা রুজু হয়েছে। ময়না তদন্তের পর নির্যাতনের কোনো চিহৃ বা অভিযোগ থাকলে পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ঢাকা, মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // আর এ এই লেখাটি বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন