bdlive24

প্রেমিকার বাড়িতে প্রেমিকের মৃত্যু!

বুধবার সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৭, ০৫:৫৪ পিএম.


প্রেমিকার বাড়িতে প্রেমিকের মৃত্যু!

নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার দাঁইড়পাড়া গ্রামে প্রেমিকার বাড়িতে প্রেমিকের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় কেওয়া বেগম (৩৫) নামে এক নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত ২টার দিকে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। কেওয়া বেগম প্রেমিকা সাগরী খাতুনের সৎ মা ও ওই গ্রামের মো. শাহিনুর ফকিরের স্ত্রী।

সাগরীর পিতা মো. শাহিনুর ফকির জানান, সাগরীর প্রেমিক কাউছার হোসেন (৩৫) তার বাড়িতে এসে সাগরীকে জোর করে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় সাগরীকে তুলে নিতে ব্যর্থ হলে রাগে-ক্ষোভে সে বিষপান করে। পরে দ্রুত তাকে বনপাড়া আমেনা হাসপাতালে ভর্তি করার পর কাউছারের পরিবার তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায় এবং সেখানে ভর্তি করার পর ৭ সেপ্টেম্বর রাত ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. সেলিম রেজা মাস্টার জানান, এটা আত্মহত্যা, না হত্যা তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। তবে সাগরীকে বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় সে আত্মহত্যা করেছে বলে শুনেছি।

কাউছারের ভাই আবু বকরের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, ওই মেয়ের জন্য কাউছার বিষপান করেছে বলে মৃত্যুর আগে তাকে জানিয়েছেন।

লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবু ওবায়েত জানান, কাউছারের মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনের জন্য তার সৎ মাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সাগরী ঢাকার আশুলিয়ায় একটি গার্মেন্টসে চাকরি করে আর কাউছার হোসেন আশুলিয়ার ঝনরন গার্মেন্টস এর কাভার্ড ভ্যান চালক। এই সুবাধে তাদের সাথে পরিচয় হয়। এরপর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তারা আশুলিয়া এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে প্রায় দুই বছর একসাথে বসবাস করতে থাকেন।

গত ৬ সেপ্টেম্বর সকালে সাগরী তার ভাই নাহিদ হোসেনের সহযোগিতায় আশুলিয়ার বাসা থেকে ট্রাক যোগে আসবাব-পত্র সহ সকল মালামাল নিয়ে বাড়িতে চলে আসে। পরে রাতে খোঁজ নিয়ে কাউছার তাদের বাড়িতে আসলে এ ঘটনা ঘটে।


ঢাকা, সেপ্টেম্বর ১৩(বিডিলাইভ২৪)// আর এ
 
        print



মোবাইল থেকে অ্যাপস ডাউনলোড করুন
android iphone windows




bdlive24.com © 2010-2014
Powered By: NRB Investment Ltd.