bdlive24

বিয়ে-বিচ্ছেদ নিয়ে রাফসান-স্পর্শিয়ার ভিন্ন কথা

সোমবার সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৭, ০৭:৪৫ পিএম.


বিয়ে-বিচ্ছেদ নিয়ে রাফসান-স্পর্শিয়ার ভিন্ন কথা

বিডিলাইভ ডেস্ক: ২০১৫ সালের ১ অক্টোবর পারিবারিকভাবে মডেল-অভিনেত্রী অর্চিতা স্পর্শিয়ার সঙ্গে বিবাহে আবদ্ধ হন নির্মাতা রাফসান আহসান।

মনের অমিলের কারণে চলতি বছরের ২১ আগস্ট দুই বছরের সংসার জীবনের ইতি টানলেন স্পর্শিয়া-রাফসান।

এদিকে বিচ্ছেদ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে দুজনের ছিল দুরকম মন্তব্য। একজন বলছেন ভালবাসা থেকে বিয়ে, শেষে মনের অমিলে বিচ্ছেদ। কিন্তু অন্যজন বলছেন ভিন্ন কথা।

বিচ্ছেদ নিয়ে বলতে গিয়ে স্পর্শিয়া এনটিভি অনলাইনকে জানান, ‘বিভিন্ন গণমাধ্যমে লেখা হয়েছে, আমার সঙ্গে রাফসানের প্রেম ছিল। কিন্তু এটা একেবারেই ভুল কথা। রাফসানের সঙ্গে তিন মাসের পরিচয়ে আমার বিয়ে হয়। এমনকি রাফসান আমার ভালো বন্ধুও ছিল না। আমার সঙ্গে অন্য আরেকজনের সম্পর্ক ছিল। তার সঙ্গে ব্রেকআপের পর অনেক প্রস্তাব আমার কাছে এসেছিল। এর মধ্যে রাফসানও দিয়েছিল। তবে অন্যদের থেকে রাফসানের পার্থক্য ছিল এটাই, রাফসানের মা আমাকে তার ছেলেকে বিয়ে করার জন্য খুব করে বলেছিলেন। আমিও তখন রাজি হই।’

স্পর্শিয়া-রাফসান দুজনে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আর সম্ভব হয় নি বলে জানান স্পর্শিয়া। এসময় তিনি আরো বলেন, ‘কিছু গণমাধ্যমে রাফসান বলেছে, আমাদের সম্পর্কে তৃতীয় ব্যক্তি ঢুকে পড়েছিল। তৃতীয় ব্যক্তি বলতে সে হয়তো আমার মাকে বোঝাতে চেয়েছে। বিষয়টা আমি পরিষ্কার করে বলছি। রাফসানকে অনেকে নির্মাতা বলে। কিন্তু আপনি খেয়াল করে দেখেন, রাফসানের কয়টা কাজ পর্দায় দর্শক দেখতে পেয়েছে। আমাদের বিয়ের পর থেকেই আমি আমাদের বাসায় ছিলাম। রাফসানও আমাদের বাসায় থাকত। বিয়ের পর খেয়াল করলাম, রাফসান কাজের প্রতি অনেক উদাসীন। অনেক অলস। আমি সংসার চালাতাম। আমাদের সমাজে বিয়ের পর স্বামী ও স্ত্রী দুজন মিলেই কিন্তু সংসারের হাল ধরে। আপনি বলেন, এটা কোন মেয়ের মা মেনে নেবে? আমার মা চাইতেন, রাফসান কাজ করুক। সব মেয়ের মা তাই চাইবেন।’

স্পর্শিয়া আরো বলেন, ‘রাফসানকে কাজের প্রতি আমি অনেক মনোযোগী করার চেষ্টা করেছি। কিন্তু ব্যর্থ হয়েছি। রাফসান কী যেন কী করে! ঘুরে বেড়ায়। এটা তো মাসের পর মাস হচ্ছিল। আমি সবকিছু মেনে নিয়েও থাকতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আর সম্ভব হলো না। আমার পরিবারে আমার মা আছেন শুধু। কিন্তু সেই মাকে রাফসান সম্মান দেখাতে পারেনি। অনেক সময় আমাদের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেছে রাফসান। যা হোক, শেষ পর্যন্ত আমি বিচ্ছেদ চেয়েছি। সেটা এখন হয়েছে। আমি এখন ভালো আছি। আমি চাই রাফসানও ভালো থাকুক।’

এর আগে রোববার রাতে আরটিভি অনলাইনকে রাফসান জানান, 'আমরা দুজন ভালোবেসে বিয়ে করেছিলাম। পরিবারের সম্মতিতেই এ বিয়ে হয়। কিন্তু আল্লাহ হয়তো চাননি তাই বিয়েটা ভেঙে গেলো। চেষ্টা করেছিলাম তবুও সম্পর্কটা টিকিয়ে রাখতে পারিনি। স্পর্শিয়া খুব ভালো মেয়ে আমি চাই সে যেন ভালো থাকে।'

তিনি আরো বলেন, 'অনেকেই জানতে চাইছেন আমাদের মধ্যে কোনো সমস্যা ছিল কিনা। আমাদের মধ্যে কোনো সমস্যা ছিল না এবং নেইও। আমরা আসলে নিজেদেরকে মানিয়ে নিতে পারছিলাম না। তাই দুজনের সিদ্ধান্তেই এই ডিভোর্স।'



ঢাকা, সেপ্টেম্বর ২৫(বিডিলাইভ২৪)// জেড ইউ
 
        print



মোবাইল থেকে অ্যাপস ডাউনলোড করুন
android iphone windows




bdlive24.com © 2010-2014
Powered By: NRB Investment Ltd.