সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ৯ই ফাল্গুন ১৪২৪ | ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

চট্টগ্রামে ভুল চিকিৎসায় নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ

মঙ্গলবার ৩রা অক্টোবর ২০১৭

98943152_1507020937.jpg
চট্টগ্রাম ব্যুরো :
চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার নাজিরহাট এলাকায় কেয়ার পয়েন্ট হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন মোসাম্মৎ সুমাইয়া আফরিন নামের এক মা। মঙ্গলবার সকালে এ অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগপত্রে লিখা আছে, সোমবার (২ অক্টোবর) সুমাইয়া আফরিন নামের এক গৃহবধূর সন্তান জন্ম হয়েছিল। তিনি ভোর ৪টা ২৫ মিনিটে বেসরকারি নাজিরহাট কেয়ার পয়েন্ট হাসপাতালে আসেন। হাসপাতালে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে বলেন, অক্সিজেন দিতে হবে এবং এখনি ভর্তি হতে হবে। সাথে সাথে তিনি ভর্তি হয়ে যান। সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে প্রসবব্যাথা উঠলে তাকে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তিনি সন্তান প্রসব করেন। এ সময় গর্ভে সন্তানের মৃত্যু হয়েছে বলে ডাক্তাররা জানান।

আফরিন বলেন, এর আগে কেয়ার পয়েন্ট হাসপাতালের ডাক্তাররা আমাকে জানিয়েছিল সবকিছু ঠিক আছে। প্রসবের পর ডাক্তাররা জানায় আমার বাচ্চা নাকি ২ দিন আগে গর্ভে মারা গেছে। তখন আমি বিতর্কে জড়িয়ে পড়লে ডাক্তাররা আবার বলেন প্রসবের ৮ ঘণ্টা আগে মারা গেছে। তারা আরও বলেন বাচ্চার নাক, নাভি, হাত নাকি কালো হয়ে গেছে। কিন্তু পরে দেখি সব ঠিক ছিল।

কান্নায় জর্জরিত মা আফরিন বলে উঠে, নয় মাস গর্ভে সন্তান ধারণ করে সন্তান কোলে নিতে পারলাম না ডাক্তার-নার্সদের অবহেলার কারণে। আমি চাই আর কোনো মায়ের কোল যেন এভাবে খালি না হয়।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপক কুমার রায় বলেন, ওই বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে আগেও অভিযোগ উঠেছিল। সুমাইয়া আফরিনের অভিযোগটি গুরুত্বের সঙ্গে আমরা খতিয়ে দেখছি। শিগগির আমরা ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ওই হাসপাতালে সবকিছু খতিয়ে দেখার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে হাসপাতালের চেয়ারম্যান শাহেদ আলী বলেন, ভুল চিকিৎসায় নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগটি সত্য নয়। বাচ্চাটি ভর্তির আগেই মারা গেছেন।

ঢাকা, মঙ্গলবার ৩রা অক্টোবর ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // জে এইচ এই লেখাটি 6 বার পড়া হয়েছে