সর্বশেষ
সোমবার ৮ই শ্রাবণ ১৪২৫ | ২৩ জুলাই ২০১৮

তবু মুশফিকই ‘সফল’ নেতা

শনিবার, অক্টোবর ৭, ২০১৭

1077477987_1507386335.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টস জিতে আগে বোলিং নেয়া, বিষয়টা মোটেও মানতে পারছেন না টাইগারভক্তরা। হয়তো প্রোটিয়াদের কঠিন কন্ডিশনে ব্যাটসম্যানদের শুরুতেই পরীক্ষায় ফেলতে নারাজ মুশি। যে কারণে দায়িত্বটা তুলে দেন পেসারদের ঘাড়ে। কিন্তু পেসাররা কতটুকু তাদের দায়িত্ব পালন করছেন সেটা নিয়ে আলোচনাটা বেশি হতে পারত। বারবার টস জিতে উল্টো সিদ্ধান্তই কী খাদে ফেলছে বাংলাদেশকে? নাকি ভুল আছে অন্য কোথায়ও।

প্রথম দিনে ৩ উইকেটে ৪২৮ রান। বোলিং ব্যর্থতার দিনে আবারও সমালোচকদের কাঠগড়ায় অধিনায়কের টস জিতে ফিল্ডিং নেওয়ার সিদ্ধান্ত। তবে কাউকে দোষ না দিয়ে দায়টা নিজের কাঁধেই নিলেন মুশি। ‘অবশ্যই এটা আমার ব্যক্তিগত ব্যর্থতা। আমি হয়তো দলকে সেভাবে উৎসাহ দিতে পারছি না। বা বোলারদের সেভাবে গাইড করতে পারছি না। বোলাররা চেষ্টা করছে হয়তোবা, হয়নি। এটা আমার ব্যর্থতা। তাছাড়া আমাদের এতো ভালো ভালো কোচ আছে। এখন আমাদের বোলিং কোচ নিজে গিয়ে তো আর মাঠে বোলিং করবেন না। কেউ যদি শিখতে না পারে, বাস্তবায়ন না করতে পারে, সেটাকে আমি আমাদের ব্যর্থতা বলব।’

তবুও একটা জায়গায় মুশফিকই সেরা। অদ্যাবধি সাদা পোশাকে দুই দলের ১১ বারের দেখায় ৯টিই জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। কেবল দুটি ম্যাচ হয়েছে ড্র। আর এই দুই ম্যাচের কাপ্তান ছিলেন মুশফিকই। তার আগে তিন দলনেতার অধীনে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে টেস্টে লড়েছিল বাংলাদেশ। এরা হলেন-খালেদ মাসুদ, খালেদ মাহমুদ ও মোহাম্মদ আশরাফুল। তিনজন মিলে ৮টি টেস্ট নেতৃত্ব দেন। কিন্তু কোনো ম্যাচেই জেতা দূরের কথা ড্রয়ের আশে-পাশেও যেতে পারেনি বাংলাদেশ। বরং সিংহভাগ ম্যাচই ইংনিস ব্যবধানে পরাজিত হয় টিম টাইগার্স। এক একটা জায়গায় সফল নাম মুশফিক।

আজ যতই আলোচনা হোক। অতীতকে ভুললে চলবে না। হয়তো দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের পর টেস্ট অধিনায়কের আসনটা ছেড়েও দিতে পারেন মুশফিক। কান পাতলে এমন একটা বাক্য শোনা যাচ্ছে। কথায় আছে, ‘সব দোষ নন্দ ঘোষ সব দোষ।’ মুশফিক একা কি পারবেন দক্ষিণ আফ্রিকার রানের স্রোতে বাঁধ দিতে? পর সমাচার, ক্যাপ্টেন্সি আর ব্যাটিংয়ে মন দেওয়ার জন্যই নাকি মুশির ‘প্রিয়’ গ্লাভস কেড়ে নেয়া হলো। পরের ধাপটা যদি এমন স্টাইলেই হয়, তবে দলনেতার চেয়ারটাও ছাড়তে হতে পারে মুশফিককে। তখন অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না টাইগারভক্তদের।

ঢাকা, শনিবার, অক্টোবর ৭, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // ম. উ এই লেখাটি ৮৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন