সর্বশেষ
শুক্রবার ৫ই মাঘ ১৪২৪ | ১৯ জানুয়ারি ২০১৮

বারবার গরম করা উচিৎ না যেসব খাবার

মঙ্গলবার ৩১শে অক্টোবর ২০১৭

1406064610_1509411894.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
ব্যস্ত জীবনে অনেকেই ফ্রিজে রাখা খাবার গরম করে খেয়ে ফেলি আমরা। তবে সব খাবারই কিন্তু বার বার গরম করে খাওয়া ঠিক না। কিছু খাবার একাধিকবার গরম করলে স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। এমন কিছু খাবার আছে যেগুলো একাধিকবার গরম করলে তাতে থাকা কেমিক্যাল পাল্টে যায়। এতে করে সেসব খাবারের পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে তা উল্টো শরীরের ক্ষতি করে।

যেসব খাবার একাধিকবার গরম করা অনুচিত সেগুলো সম্পর্কে চলুন জেনে নেয়া যাক-

# ভাত: আমরা যে ভাত খাই, তার চালে ব্যাকটেরিয়া থাকে। রান্না করার পরও সেসব ব্যাকটেরিয়া বেঁচে থাকে। তাই দীর্ঘক্ষণ বাইরে রাখা ভাত খাওয়া উচিত নয়। সেই ভাত আবারো গরম করলে ব্যাকটেরিয়া ঠিকই শরীরের ক্ষতি করবে। এতে করে বমি ও ডায়রিয়া হতে পারে আপনার।

# আলু: আলুতে প্রচুর প্রোটিন থাকে। তবে একাধিকবার গরম করা হলে আলু তার পুষ্টিগুণ হারায়। এরপর ঠান্ডা করে আবারো যদি গরম করা হয় তাহলে তাতে ব্যাকটেরিয়া জন্ম নেয়, এতে করে ফুড পয়জন তৈরি হতে পারে।

# মাশরুম: মাশরুমেও প্রচুর প্রোটিন থাকে। তবে রান্নার পর ঠান্ডা করে আবারো গরম করা হলে এই মাশরুম শরীরের জন্য খুব ক্ষতিকর হতে পারে। এতে হজমের সমস্যা হতে পারে, পাকস্থলীতে ব্যথা হতে পারে। এমনকি হার্টের জন্যেও ক্ষতির কারণ হতে পারে। তাই রান্নার পর ঠান্ডা হলেই মাশরুম খেয়ে ফেলা উচিত। নইলে  ফ্রিজে রেখে পরদিনই নামিয়ে ঠান্ডা অবস্থায় খেতে হবে। আবার গরম করা যাবে না।

# ডিম: ডিম রান্নার পর আবারো গরম করা হলে আপনার হজমের জন্য অনেক ক্ষতিকর হয়ে উঠতে পারে তা।

# মুরগীর মাংস: মুরগীতে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন থাকে। তাই একাধিকবার গরম করা হলে মুরগীর প্রোটিনের গঠন পাল্টে যায়, এতে করে হজমের জন্য খবু ক্ষতির কারণ হয়ে উঠে। তাই রান্না করা মুরগী ঠান্ডা করেই খাওয়া ভালো। কারণ রান্নার একদিন বা কয়েকদিন পর আবারো গরম করা হলে মুরগীর মাংস হজমের খুব ক্ষতি করতে পারে। যদি দ্বিতীয়বার গরম করতেই হয়, তাহলে চুলায় অল্প আঁচে অনেকক্ষণ ধরে গরম করে তবেই তা খাওয়া উচিত।

# সবুজ শাকসবজি: পালং শাকের মতো সবুজ শাক সবজিতে আয়রন ও নাইট্রেট থাকে অনেক। তাই এগুলো একাধিকবার গরম করা হলে ক্যানসারের জীবাণু তৈরি করতে পারে শরীরে। তাই সবুজ শাকসবজি রান্নার পরই খেয়ে ফেলা উচিত। এগুলো ফ্রিজে রেখে পরদিন বা কয়েকদিন পর খাওয়া একেবারেই ঠিক না।

ঢাকা, মঙ্গলবার ৩১শে অক্টোবর ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // ই নি এই লেখাটি 6 বার পড়া হয়েছে