সর্বশেষ
সোমবার ৭ই কার্তিক ১৪২৫ | ২২ অক্টোবর ২০১৮

কদমতলীতে সহকর্মীর হাতে যুবক খুন

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ৯, ২০১৭

2075031853_1510222400.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :
রাজধানীর কদমতলী এলাকার একটি প্রেসে কথা কাটাকাটির জেরে সহকর্মীর ভারী বস্তুর আঘাতে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তার নাম মো. সোহেল হোসেন (৩৮)।

বুধবার বিকাল তিনটার সময়ে পান্থপথের ইউনিহেলথ লাইফ সাপোর্টে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে ময়না তদন্ত শেষে নিহতের লাশ গ্রহন করে তার পরিবার।

নিহত সোহেলের ভাই সাঈদুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, সোহেল কদমতলীর পাটের বাগের কথা এন্টারপ্রাইজ নামের একটি প্রেসের বাইন্ডার হিসেবে কাজ করতেন। গত ৭ নভেম্বর রাতে তারই গ্রামের চাচা ইকবালের সঙ্গে তর্ক-বিতর্ক হয় সোহেলের। এরই জেরে ওইদিন রাতে সবাই প্রেসে ঘুমাতে গেলে লোহার একটি ভারি বস্তু দিয়ে সোহেলের মুখে আঘাত করে ইকবাল। পরে সে পালিয়ে যায়। ওইদিন রাত তিনটার সময়ে গুরুতর আহত অবস্থায় সোহেলকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আনা হয়। পরে ভোর সাড়ে চারটার সময়ে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য পান্থপথের ইউনিহেলথ লাইফ সাপোর্টে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন গতকাল বুধবার বিকাল তিনটার সময়ে তার মৃত্যু হয়।

সাঈদুর আরো বলেন, ইকবাল তাদের গ্রামে রিকশা চালতেন। সোহেলই তাকে ঢাকায় এসে তার প্রেসে  একটি চাকরির ব্যবস্থা করে দিয়েছিল। কোন কিছু খেতে গেলে সে ইকবালকে ছাড়া কখনও খেত না। অথচ এই ইকবালই তাকে খুন করল। সত্যিই ভাগ্যের কী নির্মম পরিহাস।

নিহত মো. সোহেল হোসেন এক ছেলে এক মেয়ে সন্তানের জনক ছিলেন। তার স্ত্রীর নাম বুবলি আক্তার। তিনি টাঙ্গাইল জেলার নাগরপুর থানার ঘড়িপুর গ্রামের মহারাজ মিয়ার ছেলে।

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ৯, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // ই নি এই লেখাটি ১২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন