সর্বশেষ
সোমবার ৭ই কার্তিক ১৪২৫ | ২২ অক্টোবর ২০১৮

খালেদা জিয়ার আত্মপক্ষ সমর্থন শেষ

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ৯, ২০১৭

1952469579_1510232009.jpg
আদালত প্রতিবেদক :
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় চতুর্থ দিনের মতো অসমাপ্ত বক্তব্য শেষ করলেন খালেদা জিয়া। শেষ করার সময় বিচারককে উদ্দেশ করে মুচকি হেসে খালেদা জিয়া বলেন, মাননীয় আদালত আজকের মতো শেষ করি।

এসময় ঢাকার বকশীবাজারের আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫ নং বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামান তার আবেদনটি মঞ্জুর করে ১৬ নভেম্বর পরবর্তী অসমাপ্ত বক্তব্য দেয়ার জন্য দিন ধার্য করেন।

অপরদিকে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা তার স্থায়ী জামিন আবেদন করলে আদালত তা না মঞ্জুর করেন। এদিন দেড় ঘণ্টার বেশি সময় ধরে আদালতে তিনি বক্তব্য দেন। বেগম খালেদা জিয়া বেলা ১১টা ৩৮ মিনিটে আদালতে উপস্থিত হন। বেলা ১২টা ৬ মিনিট থেকে ১টা ৩২ মিনিট পর্যন্ত তিনি আদালতে বক্তব্য প্রদান করেন। বেলা ১টা ৪০ মিনিটে তিনি আদালত ত্যাগ করেন।

এদিন জিয়া অরফানেজ ও চ্যারিটেবল ট্রাস্ট্র দুর্নীতির দুই মামলায় খালেদা জিয়ার স্থায়ী জামিনের আবেদন করেন তার আইনজীবী ব্যারিস্টার মওদুদ আহম্মেদ। তিনি আবেদনে বলেন, পৃথিবীর কোন ইতিহাসে সাপ্তাহিক জামিন দেয়ার নজির নেই। মামলায় খালেদাকে সাপ্তাহিক জামিন দেয়া হয়েছে। তিনি বয়স্ক মহিলা। তাই তার স্থায়ী জামিন মঞ্জুর করা হোক।

অপরদিকে দুদকের আইনজীবী মোশারফ হোসেন কাজল বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জামিনের বিরোধিতা করে বলেন, মামলা দুইটি জামিন অযোগ্য ধারার। তাকে স্থায়ী জামিন দিলে আমার আপত্তি আছে। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক খালেদা জিয়ার স্থায়ী জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেন। আগামী ১৬ নভেম্বর পর্যন্ত খালেদার জামিন মঞ্জুর করেন।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে ২০১০ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায় মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মামলার অন্য আসামিরা হলেন- খালেদা জিয়ার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী (পলাতক), হারিছের তখনকার সহকারী একান্ত সচিব ও বিআইডব্লিউটিএর নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ৯, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // ই নি এই লেখাটি ৪৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন