সর্বশেষ
শুক্রবার ১০ই ফাল্গুন ১৪২৪ | ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

যুদ্ধ বাঁধানোর জন্য এশিয়া ঘুরছেন ট্রাম্প: উ. কোরিয়া

2017-11-12 16:32:10

957912745_1510482730.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
এশিয়া সফরে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কার্যক্রম বন্ধের ওপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিলেও পিয়ংইয়ং দাবি করেছে, কোরীয় উপদ্বীপে একটি পরমাণু যুদ্ধ বাঁধানোর জন্য এশিয়া ঘুরছেন ট্রাম্প।

শনিবার উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনে সেদেশের সরকারের মুখপাত্রের এক বিবৃতির বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, ‘ট্রাম্পের এশিয়া সফর থেকে প্রতীয়মাণ হয়েছে, তিনি একজন ধ্বংসকারী এবং কোরীয় উপদ্বীপে একটি পরমাণু যুদ্ধের জন্য সবার সাহায্য চাইছেন।’

বুধবার দক্ষিণ কোরিয়া সফর শেষ করার আগে দেশটির পার্লামেন্টে দেওয়া ভাষণে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উনকে সতর্ক করে বলেছিলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রকে খাটো করে দেখার চেষ্টা করবেন না এবং যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে লাগতে আসবেন না।’

ট্রাম্পের এশিয়া সফর চলার মধ্যেই পিয়ংইয়ং তার হুঁশিয়ারির জবাব দিল। বিবৃতিতে উত্তর কোরিয়া সরকারের মুখপাত্র পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে বলেছেন, কোনো কিছুই উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু কার্যক্রম থেকে বিরত রাখতে পারবে না।

শনিবার ওই মুখপাত্র বলেছেন, ‘তার হুমকি কখনোই আমাদের ভীতসন্ত্রস্ত করতে পাবে না, না পারবে আমাদের অগ্রগতি থামাতে।’ এর বদলে যা হবে, তা হলো উত্তর কোরিয়ার ‘পরমাণু অস্ত্র বাহিনীর পরিপূর্ণতা পাওয়া’।

সাম্প্রতিক মাসগুলোর মধ্যে উত্তর কোরিয়া তাদের ষষ্ঠ এবং সবচেয়ে বড় পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্রসহ বেশ কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করার পর যুক্তরাষ্ট্র, বিশেষ করে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প একটু বেশিই নড়েচড়ে বসেন। পিয়ংইয়ং ঘোষণা দেয়, তাদের আন্তমহাদেশীয় বিধ্বংসী পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত করতে সক্ষম। এ ছাড়া জাপানের ওপর দিয়ে উত্তর কোরিয়া দুটি ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালায়, যা জাপানের অর্থনৈতিক জলসীমায় গিড়ে পড়ে। এরপর জাপানও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানায় এবং দেশটিকে মোকাবিলার প্রতিশ্রুতি দেয়।

ডোনাল্ড ট্রাম্প জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, চীন ও ভিয়েতনামে তার সফরে উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু নিরস্ত্রীকারণ করার জন্য সবার সাহায্য চেয়েছেন। তবে একই সময়ে কখনো কখনো কঠোর অবস্থান থেকে সুর নরম করে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনা ও কূটনৈতিক সমঝোতার প্রচেষ্টার কথাও বলেছেন। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইন

ঢাকা, 2017-11-12 16:32:10 (বিডিলাইভ২৪) // ই নি এই লেখাটি 0 বার পড়া হয়েছে