bdlive24

ইরান-ইরাক সীমান্তে ভূমিকম্পে নিহত বেড়ে ৩৩২

সোমবার নভেম্বর ১৩, ২০১৭, ০৪:১৭ এএম.


ইরান-ইরাক সীমান্তে ভূমিকম্পে নিহত বেড়ে ৩৩২

বিডিলাইভ ডেস্ক:  ইরান ও ইরাকের উত্তর সীমান্তে রোববার (১২ নভেম্বর) রাতে ৭.৩ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে।

শক্তিশালী এ ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৩২ জনে। ভূমিকম্পে আহত হয়েছে আরো ২৫শ' মানুষ। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। ইতোমধ্যে আহতদের জরুরি চিকিৎসা সেবা দেওয়া শুরু হয়েছে।
 
রোববার রাতে ইরাকের হালাবজা শহর থেকে ২১ মাইল দক্ষিণে ভূমিকম্পটি আঘাত হানে। খবর রয়টার্স।

ভূমিকম্পের তীব্রতা এতটাই বেশি ছিল যে, তা তুরস্ক, আরমেনিয়া, কুয়েত, জর্দান, লেবানন, সৌদি আরব ও বাহরাইন ও কাতার থেকেও অনুভূত হয়।

মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ বিভাগ জানিয়েছে, কুর্দি সরকার-শাসিত সুলাইমানিয়া শহর থেকে ১৩০ কিলোমিটার দূরে হালাবজার কাছে ভূমিকম্প প্রচণ্ড আঘাত হেনেছে।

এর মূলকেন্দ্র ছিল ভূপৃষ্ঠ থেকে ৩৩.৯ কিলোমিটার গভীরে। তবে ক্ষয়ক্ষতির বিস্তারিত তথ্য জানা যায়নি।

ইরাকের রাজধানী বাগদাদ থেকে ভূমিকম্পের কেন্দ্রের দূরত্ব অনেক হলেও সেখানে ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। বাগদাদের ভবনগুলো প্রচণ্ডভাবে কেঁপে ওঠে। অনেকে একে প্রথমে বিস্ফোরণ বলে মনে করলেও কম্পন এক মিনিটের বেশি সময় স্থায়ী হওয়ায় পরে একে ভূমিকম্প বলে বুঝতে পারে।

ভূমিকম্পের পর কয়েক দফা আফটার শক হয়েছে এবং ইরানের কুর্দিস্তান, কেরমানশাহ, ইলাম, খুজিস্তান, হামেদান, পশ্চিম আজারবাইজান, পূর্ব আজারবাইজান, লোরেস্তান, তেহরান, কাজভিন, যানজান ও কোম প্রদেশ থেকে তা অনুভূত হয়।

ইরাকি আবহাওয়া অফিসের একজন কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ইরান সীমান্তের খুব কাছে আধা-স্বায়ত্তশাসিত কুর্দিস্তান অঞ্চলে সুলাইমানিয়াহ প্রদেশের পেনজিনে ছিলো এ ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল।

ইরানের জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থা জানিয়েছে, ভূমিকম্পের ফলে কেরমানশাহ প্রদেশে বিদ্যুত বিচ্ছিন্ন রয়েছে এবং ইন্টারনেট সেবায় বিঘ্ন দেখা দিয়েছে। এছাড়া, গ্রাম এলাকার কিছু ঘর-বাড়ি ধ্বংসের খবর পাওয়া গেছে।



ঢাকা, নভেম্বর ১৩(বিডিলাইভ২৪)// এস এইচ
 
        print



মোবাইল থেকে অ্যাপস ডাউনলোড করুন
android iphone windows




bdlive24.com © 2010-2014
Powered By: NRB Investment Ltd.