bdlive24

টানা বসে কাজ না করে অঙ্গ বিন্যাসে পরিবর্তন আনুন

বুধবার নভেম্বর ১৫, ২০১৭, ১১:১২ এএম.


টানা বসে কাজ না করে অঙ্গ বিন্যাসে পরিবর্তন আনুন

বিডিলাইভ ডেস্ক: একটানা বসে থাকলে কোমর ব্যথা হওয়াসহ স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। অফিসে বা বাড়িতে বসে কাজ করাটাই হয়তো আপনার জীবনপদ্ধতির অবিচ্ছেদ্য অংশ। তবুও এর মাঝে একটু হাঁটাচলা করা প্রয়োজন। এছাড়াও কিছু নিয়ম মেনে চলা জরুরি।

একটানা বসে থাকার ফলে মুটিয়ে যাওয়ার প্রবণতা দেখা দেয়। ডায়াবেটিস ও হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়ে। আবার একটানা একই ভঙ্গিতে বসে থাকার ফলে ঘাড় বা পিঠে ব্যথাও হতে পারে।

গবেষণায় দেখা গেছে, যিনি প্রতিদিন একটানা বসে থাকেন, নিয়মিত ব্যায়াম করলেও তিনি বসে থাকার ফলে সৃষ্টি হওয়া সমস্যাগুলোর ঝুঁকি এড়াতে পারেন না। তাই ছুটির দিনগুলোতে শিশুকে বাইরে নিয়ে যান। দৌড়ঝাঁপ করে খেলুন ওর সঙ্গে।

অফিসে কাজের পরিবেশ ও নিয়মকানুন হয়তো বদলে ফেলতে পারবেন না। পরিবর্তন আনুন নিজের মাঝে। কাজের ফাঁকে ফাঁকে একটু সময়ের জন্য হলেও চেয়ার ছেড়ে উঠুন। হাত ও পায়ের বিভিন্ন জয়েন্ট বা অস্থিসন্ধি নাড়ান।

যারা টানা বসে কাজ করছে বা দীর্ঘ ভ্রমণ করছেন  তাদের ক্ষেত্রে সাবধানতা হলো, ৩০ মিনিট পর আপনি একটু উঠে বসুন, আপনার অঙ্গ বিন্যাস পরিবর্তন করলেন। মেরুদণ্ডের পেছনে একটি বাঁকানো থাকে। আমরা যখন বসে আছি, সামনে ঝুঁকে যখন কাজ করি, তখন বাঁকানো অংশটা ডিক্রিজ হয়ে যায়। তাই আমাদের কাজ হলো, কার্ভকে আবার আগের জায়গায় নিয়ে আসা। এই নিয়মগুলো যদি আমরা মানি, তাহলে কোমর ব্যথার কষ্ট থেকে অনেক রেহাই পেতে পারব।

তাছাড়াও সারাদিন কাজ করার পর বাসায় গিয়ে ১০ মিনিট বালিশ ছাড়া শুয়ে থাকতে হবে। তাহলে আপনার এই কষ্ট হবে না। প্রতিদিন সকালবেলা ব্যায়াম করা। মাথা উপরের দিকে ওঠানো-নামানো। তাহলে কোমরের পেশিগুলো যে কাজ করে সেখানে সে ফিরে আসবে। কারণ, ঘুম থেকে ওঠার পরই আমি বসে কাজ করি। খাবার টেবিলে বসি, অফিসে অনেক ঘণ্টা বসি। কার্ভটা আমি যদি সঠিক রাখি, তাহলে ভালো থাকা সম্ভব।

অফিসে ডেস্কে কাজের মাঝে দুই মিনিট সময় পেলে হয়তো ইন্টারনেট ব্রাউজ করেন আপনি কিংবা মুঠোফোনটা হাতে নিয়ে থাকেন। এটা না করে বরং দুই মিনিটের এই খুদে বিরতিতেই চেয়ার ছেড়ে একটু হেঁটে আসুন। সহকর্মীর ডেস্কে গিয়ে কুশল বিনিময় করে আসুন। কিংবা জানালার পাশে গিয়ে দাঁড়ান। বসে হালকা ব্যায়ামও করতে পারেন।

বাড়িতেও একই নিয়ম মেনে চলুন। কম্পিউটারে বা টেবিলে বসে কাজ করার সময় মাঝে মাঝে সামান্য বিরতি নিয়ে হাঁটাচলা করুন। টেলিভিশন দেখার অভ্যাস এবং কম্পিউটার, মুঠোফোনসহ সব ধরনের ডিজিটাল ডিভাইসের ওপর নির্ভরশীলতা কমিয়ে ফেলুন। বাড়ির বারান্দা কিংবা ছাদে একটু সময় কাটান।


ঢাকা, নভেম্বর ১৫(বিডিলাইভ২৪)// জে এস
 
        print



মোবাইল থেকে অ্যাপস ডাউনলোড করুন
android iphone windows




bdlive24.com © 2010-2014
Powered By: NRB Investment Ltd.