নোয়াখালীতে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ: গ্রেপ্তার ১৪
নোয়াখালীতে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ: গ্রেপ্তার ১৪

নোয়াখালীতে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ ও পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় বৃহস্পতিবার সুধারাম থানার এসআই নেফাল চন্দ্র বাদী হয়ে মামলা করেছেন। মামলায় ১১৭জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত এক হাজার লোককে আসামি করা হয়েছে। এ মামলায় এখনও পর্যন্ত ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃত আসামিরা হলেন-জেলা যুবদল সভাপতি মাহবুব আলমগীর আলো (৫৬), সদর থানা বিএনপির সাধারন সম্পাদক জসিম উদ্দিন (৪৭), আল মামুন প্রকাশ বাপ্পী (২৭) সদস্য বিএনপি, জায়েদ উল্যা জাবেদ (২২), মিজান (২৭), সোহেল (৩০), সাহাব উদ্দিন (২৭), মো. রায়হান (২০), আবুল কাসেম (৪৪), আবদুল মাজেদ (২৬), আনোয়ার হোসেন সজিব (২৫), তাজুল ইসলাম (৫৪) পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ড সভাপতি, আবুল বশার (২৪) ও ইকবাল হোসেন জুয়েল (২৪)। আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন কনস্টেবল জাহাঙ্গীরসহ ৩ জন।

গ্রেপ্তারকৃতদের বৃহস্প্রতিবার বিকেলে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। সুধারাম থানার ভার প্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো. আনোয়ার হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ্য, বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া’সহ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদীতে দলীয় নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করে। এসময় পুলিশ বাধা দিলে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ কয়েক রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছুঁড়ে। সংঘর্ষে ৩ পুলিশ সদস্যসহ অন্তত ২০জন আহত হন।

ঢাকা, অক্টোবর ১২(বিডিলাইভ২৪)