সর্বশেষ
শুক্রবার ৩রা বৈশাখ ১৪২৮ | ১৬ এপ্রিল ২০২১

ভারতের গণতন্ত্রকে সম্মান করে যুক্তরাষ্ট্র: পম্পেও

বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৯

image-10.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে যখন উত্তাল হয়ে উঠেছে ভারত, এরইমধ্যে ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও।

বৈঠক শেষে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, তারা ভারতের গণতন্ত্রকে সম্মান করেন। তিনি বলেন, আমরা সবসময়ই গভীরভাবে সংখ্যালঘু ও ধর্মীয় স্বাধীনতা সুরক্ষার চেষ্টা করি। একইসঙ্গে ভারতে চলমান বিতর্কে আমরা দেশটির গণতন্ত্রের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে চাই।

বাংলাদেশ, আফগানিস্তান ও পাকিস্তান থেকে নিপীড়নের মুখে ভারতে পালিয়ে যাওয়া হিন্দু, বৌদ্ধ, শিখ, জৈন, পার্সি ও খ্রিস্টানদের নাগরিকত্ব নিশ্চিতে সম্প্রতি আইন সংশোধন করেছে ভারত। গত ১২ ডিসেম্বর রাতে প্রেসিডেন্টের স্বাক্ষরের পরেই আইনে পরিণত হয়েছে বিতর্কিত বিলটি। এই বিতর্কিত আইন প্রত্যাহারের দাবিতে দেশজুড়ে সরব একাধিক রাজনৈতিক দল।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শংকরের সঙ্গে বৈঠকের পর মাইক পম্পেও বলেন, আমরা সর্বত্র সংখ্যালঘু এবং ধর্মীয় অধিকার রক্ষার বিষয়ে সব সময় সচেষ্ট থাকব। আমরা এই সব ইস্যু নিয়ে যেভাবে ভারতে বিতর্ক চলছে তা দেখে আমরা ভারতীয় গণতন্ত্রকে আরও একবার সম্মান জানাই।

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপারকে এক ভারতীয় কূটনীতিক সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন পাস হওয়ার পরে ভারতে চলা লাগাতার বিক্ষোভের বিষয়ে প্রশ্ন করতে তিনি জবাবে বলেন যে, এই আইনটি ধর্মীয়ভাবে বৈষম্যমূলক বলেই তিনি শুনেছেন। মার্কিন পররষ্ট্রমন্ত্রীকে জিজ্ঞাসা করা হয়, যুক্তরাষ্ট্র তো বিশ্বজুড়ে ধর্মীয় অধিকার রক্ষার ব্যাপারে খুবই সোচ্চার। আপনি কি গণতন্ত্রের পক্ষে নাগরিকত্বের একটি নির্ধারক মানদণ্ড হিসাবে ধর্মীয় বিশ্বাসকে ব্যবহার করা উপযুক্ত বলে মনে করেন? তবে তার হয়ে উত্তর দেন জয়শঙ্কর।

জয়শঙ্কর বলেন, ‘যদি সেই নির্দিষ্ট আইনটি নিয়ে যে বিতর্ক চলছে তা মনোযোগ সহকারে খেয়াল করেন, তবে দেখতে পাবেন যে, কয়েকটি দেশে ধর্মীয় নিপীড়নের ফলে সেখান থেকে চলে এসে এ দেশে এসে আশ্রয় নেওয়া ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের সমস্যা সমাধানের জন্যেই এই আইনটি তৈরি হয়েছে।’

মাইক পম্পেও আরো বলেন, শুধু ভারত নয়, বিশ্ব জুড়ে ধর্মীয় বৈষম্য নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৭০০ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন